নাটোরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ১২

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ০২:৪৪ পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২
আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে

নাটোরের সিংড়ায় দুপক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১২ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে চলনবিলের দুর্গম এলাকা বেড়াবাড়ি গ্রামে এ সংঘর্ষ ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, ২০১৬ সালে বেড়াবাড়ি গ্রামে রেজাউল নামের একজনকে হত্যা করা হয়। হত্যা মামলার আসামিরা বাদী পক্ষকে মামলা তুলে নিতে ও সাক্ষী না দিতে বিভিন্নসময় হুমকি দিয়ে আসছিলেন। অপরদিকে মসজিদের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র সম্প্রতি বিষয়টি জোরালো হয়। শুক্রবার মসজিদের কমিটি গঠন হওয়ার কথা থাকলেও হয়নি।

নিহত রেজাউলের স্ত্রী মনিরা বেগম অভিযোগ করে বলেন, ‘শনিবার সকালে আমার স্বামী হত্যা মামলার ৩ নম্বর আসামি সাইফুলের নেতৃত্বে অতর্কিত হামলা চালানো হয়। এতে শামীম প্রামাণিক, মনসুর রহমান, আলী আজগর, আ. মান্নান, সাইদুর, সবুজ, শুভ, আব্দুর রউফ, দীপন, জামাল, বাবু সরকার, আমিরুল তালুকদার গুলিবিদ্ধ হন। এছাড়া মোজাম্মেল, লাকী বেগম ও শিরিনা বেগমকে কুপিয়ে জখম করে তারা।’

na-(1).jpg

তিনি আরও বলেন, ‘আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্থানীয়রা। গুলিবিদ্ধসহ ১৩ জনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।’

ডাহিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল মজিদ মামুন জাগো নিউজকে বলেন, বেড়াবাড়ি গ্রামে দুই গ্রুপের দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিন যাবত। আমরা বার বার চেষ্টা করেও সমাধান করতে পারিনি। প্রশাসনের কাছে আবেদন এলাকায় শান্তি ফেরাতে তারা যেন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়।

সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। আমরা উভয়পক্ষের ৯ জনকে আটক করে থানায় এনেছি। প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রেজাউল করিম রেজা/এসজে/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।