৫ মিনিটে সূচক বাড়ল ২৬ পয়েন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:২৫ এএম, ০১ জুন ২০২০

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দুই মাসের বেশি সময় পর লেনদেন শুরু হওয়া দেশের শেয়ারবাজারে টানা ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা দিয়েছে। আগের দিনের ধারাবাহিকতায় সোমবারও মূল্যসূচক বেড়ে শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয়েছে।

করোনাভাইরাস মোকাবিলার অংশ হিসেবে সরকার গত ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করলে শেয়ারবাজারের লেনদেন বন্ধ করে দেয় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) কর্তৃপক্ষ।

সাধারণ ছুটির মেয়াদ বাড়ালে দুই শেয়ারবাজারের কর্তৃপক্ষও লেনদেন বন্ধ রাখাসহ স্টক এক্সচেঞ্জের সকল কাজ ৩০ মে পর্যন্ত বন্ধ রাখে। টানা ৬৬ দিন বন্ধ থাকার পর গতকাল রোববার থেকে শেয়ারবাজারে আবার লেনদেন শুরু হয়। বন্ধের পর প্রথম দিনের লেনদেনে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক বাড়ে ৫২ পয়েন্ট।

সোমবারও লেনদেনের শুরুতে শেয়ারবাজারে উত্থানের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। প্রথম ৫ মিনিটের লেনদেন ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ২৬ পয়েন্ট বেড়ে গেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ২০ পয়েন্ট এবং ডিএসই শরিয়াহ্ ১০ পয়েন্ট বেড়েছে।

এ সময় পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ৩৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ২১টির। আর ১৩৩টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ১৯ কোটি ১৬ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৬ পয়েন্ট বেড়েছে। লেনদেন হয়েছে ৩৪ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেয়া ১৭ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৭টির, কমেছে ২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৮টির।

সূচক ঊর্ধ্বমুখী রাখতে ব্যাংক খাত কিছু ভূমিকা রেখেছে। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্ধারণ করে দেয়া ফ্লোর প্রাইসের (দাম কমার সর্বনিম্ন সীমা) কারণে আজ ১৬টি ব্যাংকের শেয়ারের দাম কমার পথ বন্ধ হয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে- আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক, ইবিএল, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, আইএফআইসি, যমুনা ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক এসআইবিএল, সাউথ ইষ্ট ব্যাংক এবং ট্রাস্ট ব্যাংক। এ ব্যাংকগুলোর শেয়ার দাম কমার সুযোগ না থাকায় প্রতিষ্ঠানগুলো মূল্যসূচকে কোনো ধরনের নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে না।

এমএএস/এমএফ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]