স্বাস্থ্যকর্মীদের দাবি পূরণে কমিটি গঠন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:৫২ পিএম, ০২ জানুয়ারি ২০১৮

মাঠ পর্যায় স্বাস্থ্যকর্মীদের ঝুঁকি ভাতা চালু, গ্রেড পরিবর্তন, প্রতি ওয়ার্ডে একজন স্বাস্থ্য সহকারী নিয়োগ, চাকরি ক্ষেত্রে পোষ্য কোটা প্রচলনের দাবি বাস্তবায়নের সুপারিশ প্রদানের জন্য স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিবের নেতৃত্বে কমিটি গঠন করে দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

মন্ত্রীর এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীরা তাৎক্ষণিকভাবে আন্দোলন স্থগিত করে কাজে যোগদান করার ঘোষণা দিয়েছেন। কমিটিতে মন্ত্রণালয় বা অধিদফতরের একজন এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের একজনকে অন্তর্ভুক্ত করারও নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম দ্রুত শুরু করার জন্য মন্ত্রী স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে নির্দেশ দেন। মঙ্গলবার সচিবালয়ে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য সহকারী অ্যাসোসিয়েশন (বিএইচএএ) এবং বাংলাদেশ স্বাস্থ্য পরিদর্শন সমিতির প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে সভাপতিত্বকালে তিনি এ নির্দেশ দেন।

এ সময় অ্যাসোসিয়েশনের উপদেষ্টা সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. সিরাজুল হক খান, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব ফয়েজ আহম্মদ, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, বিএইচএএ সভাপতি এনায়েত রাব্বী লিটন, মহাসচিব জাকার্তা হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক নূর নবী, সদস্য ফয়জুর রহমান এবং সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব মোর্শেদুল আলমসহ মন্ত্রণালয় এবং অধিদফতরের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্য সহকারী ও স্বাস্থ্য পরিদর্শকদের বিভিন্ন দাবিসমূহ শোনেন এবং কয়েকটি দাবির যৌক্তিকতা অনুধাবন করে দ্রুত বাস্তবায়ন করার প্রক্রিয়া শুরুর আশ্বাস দেন।

মন্ত্রী বলেন, মাঠ পর্যায়ের স্বাস্থ্য কর্মীদের নিরলস প্রচেষ্টায় শিশুদের টিকা প্রদান কার্যক্রম সফলভাবে নিয়মিত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। টিকাদানের সাফল্যের জন্য বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিকভাবে পুরস্কৃত করা হয়েছে। তাদের দেশব্যাপী অংশগ্রহণে শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানোর কর্মসূচিও সাফল্য অর্জন করেছে। তাই স্বাস্থ্যকর্মীদের সব যৌক্তিক দাবি পূরণ করার পদক্ষেপ নেয়া হবে।

তিনি বলেন, দাবিগুলোর অধিকাংশের সঙ্গে আন্তঃমন্ত্রণালয় সিদ্ধান্তের বিষয় জড়িত। সেক্ষেত্রে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এবং অর্থমন্ত্রণালয়ের সঙ্গে দ্রুত বৈঠকে বসার কথাও মন্ত্রী জানান।

এমইউ/এমআরএম/আইআই