গণিতে অনুপস্থিত ৪৫ হাজার, ৩৩ শিক্ষক-শিক্ষার্থী বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:১৬ পিএম, ০৮ নভেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষার চতুর্থ দিনে প্রায় ৪৫ হাজার পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। এ ছাড়াও অসদুপায় অবলম্বন করায় ২৭ পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়। এদিন প্রথমবারের মতো দায়িত্বরত ৬ শিক্ষককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরীক্ষা কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো জেএসসি পরীক্ষার আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের তথ্য থেকে এসব বিষয় জানা গেছে। এদিন জেএসসির গণিত বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আটটি বোর্ডের সার্বিক চিত্রে দেখা গেছে, এবার ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ৫০১টি পরীক্ষা কেন্দ্রে মোট শিক্ষার্থী সংখ্যা ছিল ৬ লাখ ৯৩ হাজার ৫৩৫ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৬ লাখ ৭৬ হাজার ৬১৫ জন। অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৬ হাজার ৯২৪ জন। এরমধ্যে অসদুপায় অবলম্বনের জন্য ঢাকা বোর্ডে ১৩ জন পরীক্ষার্থী ও একজন শিক্ষককে বহিষ্কার করা হয়।

চট্টগ্রাম বোর্ডে ২২৪টি কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৯১ হাজার ৩৯২ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ৮৭ হাজার ৬৯৬ জন। অনুপস্থিত ছিল ৩ হাজার ৬৯৬ জন। এ বোর্ড একজন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়।

রাজশাহী বোর্ডে ২৫৩ কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ৪৮ হাজার ৬৩৫ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৪৩ হাজার ৭৮৫ জন। অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ৮৫০ জন। ৩ জন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বরিশাল বোর্ডের ১৭৪টি কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ১৮ হাজার ২৩৮ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ১৪ হাজার ৯৯৫ জন। অনুপস্থিত ছিল ৩ হাজার ২৪৩ জন শিক্ষার্থী। বহিষ্কার হয়েছে চারজন পরীক্ষার্থী।

সিলেট বোর্ডের অধীনে ১৩১টি কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৪৭ হাজার ২৭৬ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ৪৪ হাজার ২৩৭ জন। আর অনুপস্থিত ছিল ৩ হাজার জন। বহিষ্কার নেই কেউ।

দিনাজপুর বোর্ডের অধীনে ২৮২টি কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ৪৫ হাজার ৩৭৫ জন। আর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৪১ হাজার ৪১২ জন। অনুপস্থিত ছিল ৩ হাজার ৯৬৩ জন। বহিষ্কার নেই একজনও।

কুমিল্লা বোর্ডে মোট ২৯৯টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী সংখ্যা ছিল ২ লাখ ৫৯ হাজার ৬৪৬ জন। আর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৬৮ জন। অনুপস্থিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ হাজার ৫৭৮ জন। এ বোর্ডে পরীক্ষার্থী একজনও বহিষ্কার না হলেও ৫ জন শিক্ষককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

অন্যদিকে যশোর বোর্ডে মোট ২৭০টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী সংখ্যা ছিল ২ লাখ ২৯ হাজার ৭৯২ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ২৪ হাজার ৪০৮ জন। অনুপস্থিত ছিল ৫ হাজার ৩৮৪ জন। বহিষ্কার নেই কেউ।

আগামীকাল শুক্রবার জেএসসি-জেডিসির ইংরেজি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। গত রোববার এ পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও কওমি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের শোকরিয়া মাহফিলের করাণে এ পরীক্ষা স্থগিত করে শুক্রবার নির্ধারণ করা হয়। আগামী ১৫ নভেম্বর শেষ হবে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা।

এমএইচএম/এনডিএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :