‘উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়ন প্রকল্পের অর্জন অনেক’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০৩ পিএম, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮

ইউজিসির উচ্চশিক্ষা মানোন্নয়ন প্রকল্পের (হেকেপ) অর্জনের প্রশংসা করলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের সচিব সোহরাব হোসাইন।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে হেকেপের ১০ বছর পূর্তিতে জাতীয় কর্মশালা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে হেকেপ প্রকল্পের নানা অর্জন তুলে ধরেন তিনি।

এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, হেকেপের প্রকল্প পরিচালক ড. গৌরাঙ্গ চন্দ্র মোহান্ত, বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধি মোকলেসুর রহমান, ইউজিসির সদস্য ইউসুফ আলী মোল্লা। হেকেপ প্রকল্পের ১০ বছর পূর্তি ও মেয়াদ শেষ হওয়ায় এর অর্জন বিষয়ে প্রতিবেদন তুলে ধরা হয়।

সোহরাব হোসাইন বলেন, ‘উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়নে হেকেপ প্রকল্পের অর্জন অনেক। এর মাধ্যমে দেশের উচ্চশিক্ষা অনেক এগিয়ে নেয়া সম্ভব হয়েছে। এ প্রকল্পের সহায়তায় পাবলিক-প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা কাজে অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যমে রক্ত পরীক্ষায় স্বল্প খরচে সহজেই ক্যান্সার রোগ শনাক্ত, গবাদিপশুর খুরা রোগের ভ্যাকসিন তৈরি, পাটকাঠি থেকে সুতা তৈরিসহ দেশে নতুন নতুন আবিষ্কার ও বড় সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশের গবেষকদের আবিষ্কারগুলোকে বাণিজ্যিকিকরণ করতে পারলে বাংলাদেশ অনেক লাভবান হবে। যদি তা না করা সম্ভব হয়, তবে এসব উদ্ভাবনে ভালো ফল আসবে না। আমাদের খুব কম প্রকল্পকে বিশ্বব্যাংক সফল হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে।’ তবে হেকেপ প্রকল্পের কার্যক্রম নিয়ে বিশ্বব্যাংক প্রশংসা করেছে বলে জানান তিনি।

গবেষক-শিক্ষকরা আমাদের পথ দেখিয়ে দেবেন মন্তব্য করে সচিব বলেন, ‘দেশের উন্নয়ন গবেষক-শিক্ষকদের মাধ্যমে হয়ে থাকে। তারা আমাদের যে পথে এগিয়ে নেবে আমরা সে পথে ধাবিত হব। বাংলাদেশকে উন্নত দেশের সারিতে দাঁড় করাতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।’

Ugc-news

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ইউজিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেন, ‘উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়ন প্রকল্প বাংলাদেশের একটি গর্ব করার মতো প্রকল্প। আমাদের কোনো প্রকল্পই এক বছর হাতে রেখে ৯০ শতাংশ কাজ শেষ করতে পারেনি। শুধু উচ্চশিক্ষা মানোন্নয়ন প্রকল্প সাফল্যের সঙ্গে এটি করতে পেরেছে। আর এটি সম্ভব হয়েছে, বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষা ও গবেষণায় গবেষকদের ইউজিসির নিরবচ্ছিন্নভাবে সহায়তার কারণে।’

হেকেপ প্রকল্পের অধীনে অসাধারণ গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য গবেষকদের ধন্যবাদ এবং দেশের কল্যাণে আরও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার অনুরোধ জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা, পাবলিক-প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, ইউজিসি কর্মকর্তা, হেকেপ প্রকল্পের কর্মকর্তা প্রমুখ।

এমএইচএম/এনডিএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :