বাণিজ্য নির্ভর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে নজর দেওয়ার সময় এসেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৬:৫০ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৯

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, অনেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে অবদান রাখছে। আবার অনেকগুলো রাখছে না। সময় এসেছে যেসব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় জ্ঞান সৃষ্টিতে অবদান রাখছে না, তাদের দিকে নজর দেওয়ার।

তিনি বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপটে দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে জ্ঞান ও গবেষণার পরিধি বাড়ানোর বিষয়টি ভেবে দেখার সময় এসেছে। এ লক্ষ্যে সরকার বেসরকারি শিক্ষাখাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে। যারা শুধু বাণিজ্যিক চিন্তা-ভাবনায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করছেন তাদের মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে।

রোববার (২১ জুলাই) সকালে চট্টগ্রামের প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির দ্বিতীয় সমাবর্তন অনু্ষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। নগরীর টাইগারপাসে নেভি কনভেনশন হলে এ সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

NOWFEL

বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা মহিউদ্দিন চৌধুরীর বড় ছেলে উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যাতে শিক্ষা নিয়ে বাণিজ্য না করে সে জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পরপরই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন পাস করেন। আইনটি পাস হওয়ার পর বেশিরভাগ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিকানা বিলুপ্ত করা হয়। যদি ওই আইনটি তিনি পাস না করতেন, তাহলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে হস্তক্ষেপ করা যেত না।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, উন্নত বিশ্বে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অ্যালামনাই থাকে, তারা গ্রাজুয়েটদের কর্মসংস্থান ও কর্মজীবনে সহায়ক ভূমিকা রাখে। আপনারা দেশে-বিদেশে ছুটে যাবেন। আপনাদের মধ্যে আদর্শিক চিন্তা-চেতনায় ভিন্নতা থাকতে পারে, তবে দেশের স্বার্থে সবাইকে এক হতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় উন্নয়নের সূচনা হয়েছে, তাই সংশ্লিষ্ট সবাইকে কাজ করে যেতে হবে।

NOWFEL

অনুষ্ঠানে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ১ হাজার ১১২ জনকে ডিগ্রি দেওয়া হয়।

এছাড়া অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ ও প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. অনুপম সেন উপস্থিত ছিলেন।

আরএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :