অগ্নিকাণ্ড থেকে নিরাপদ থাকতে বইটি কেন জরুরি

মিজানুর রহমান মিথুন
মিজানুর রহমান মিথুন মিজানুর রহমান মিথুন , লেখক ও সাংবাদিক
প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

এবারের অমর একুশে বইমেলায় কবি, কথাশিল্পী ও সাংবাদিক সালাহ উদ্দিন মাহমুদের লেখা একটি গুরুত্বপূর্ণ বই প্রকাশিত হয়েছে। বইটির নাম ‘অগ্নিকাণ্ড সতর্কতা ও নির্বাপণ কৌশল’। বইটি সম্পর্কে আলোচনা করার আগে অগ্নিকাণ্ড নিয়ে দু’একটি কথা বলার প্রয়োজন বোধ করছি।

দুর্ঘটনা আমাদের চারপাশে সব সময় ঘোরাফেরা করে। তাই আমাদের সর্বদা সতর্ক থাকতে হবে। একটি প্রচলিত কথা আছে, ‘সাবধানের মার নেই’। আমাদের প্রাত্যহিক জীবনযাপনের মধ্যে যেসব দুর্ঘটনা ঘটে; তার মধ্যে অগ্নিকাণ্ডকে এক নম্বরে রাখা যায়। শুধু সাধারণ আগুন ব্যবহার থেকে অগ্নিকাণ্ড নয়, প্রযুক্তি নির্ভর আমাদের বর্তমান জীবনযাপনের বিভিন্ন কারণে আমরা অগ্নিকাণ্ডের শিকার হতে পারি।

তাই সর্বগ্রাসী এ অগ্নিকাণ্ড থেকে নিরাপদ থাকতে আমাদের তীক্ষ্ণ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। পাশাপাশি অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হলে তা নেভানোর আধুনিক ও বিজ্ঞানসম্মত কলা-কৌশল জানা আমাদের জন্য অতীব জরুরি। আগুন লাগলে তা নির্বাপণের জন্য তাৎক্ষণিকভাবে আমরা সনাতন পদ্ধতি ব্যবহার করি। তবে এ পদ্ধতি ব্যবহার করে বড় অগ্নিকাণ্ড নেভানো সম্ভব নয়।

অগ্নিকাণ্ডের হাত থেকে বাঁচার যুগোপযোগী বিভিন্ন পদ্ধতি জানার জন্য সালাহ উদ্দিন মাহমুদের লেখা ‘অগ্নিকাণ্ড সতর্কতা ও নির্বাপণ কৌশল’ বইটি আমাদের সবার পড়া এবং সংগ্রহে রাখা উচিত। বইটিতে অগ্নিকাণ্ড যাতে না ঘটে সে বিষয়ে সতর্কতা এবং অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হলে নির্বাপণের কৌশল সম্পর্কে বিশদভাবে বর্ণনা করা হয়েছে। বইটি লেখার ভাষা অত্যন্ত ঝরঝরে ও সহজবোধ্য, যা সব শ্রেণির পাঠকের জন্য উপযোগী।

বইয়ের গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় নিয়ে কথা না বললেই নয়। ‘অগ্নিকাণ্ড সতর্কতা ও নির্বাপণ কৌশল’ বইটির শেষ অধ্যায়ে সমগ্র বাংলাদেশের প্রতিটি জেলার ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের জরুরি ফোন নম্বর দেওয়া হয়েছে। অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হলে ওই নম্বরে যোগাযোগ করলে সরকারের অগ্নি নির্বাপণকর্মীরা দ্রুত ছুটে আসবেন।

‘অগ্নিকাণ্ড সতর্কতা ও নির্বাপণ কৌশল’ বইটি প্রকাশ করেছে মাতৃভাষা প্রকাশ। ২০০ টাকা মূল্যের বইটি বইমেলার মাতৃভাষার ২০১-২০২ নম্বর স্টল থেকে ১৫০ টাকায় সংগ্রহ করা যাবে। সুন্দর এমন একটি বই উপহার দেওয়ার জন্য লেখক সালাহ উদ্দিন মাহমুদকে ধন্যবাদ না দিলে কার্পণ্য করা হবে। আমি বইটির বহুল প্রচার কামনা করছি।

এসইউ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]