শাহজাদা সেলিম রেজার গল্পগ্রন্থ ‘আধেক জীবন’

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১২ পিএম, ১৩ মার্চ ২০২২

সাংবাদিক শাহজাদা সেলিম রেজা। এবারের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশ হয়েছে তার প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘আধেক জীবন’। ছোট ছোট দশটি গল্পে সাজানো বইটি প্রকাশ করেছে দেশ পাবলিকেশন্স। প্রচ্ছদ করেছেন চিত্রশিল্পী চারু পিন্টু।

বইটির বিষয়ে সাংবাদিক শাহজাদা সেলিম রেজা বলেন, ‘আধেক জীবন বইটি আমার দীর্ঘ দিনের চেষ্টার ফল। আগে থেকেই গল্প-উপন্যাস খুব পছন্দের আমার। আর আমি ইংরেজি সাহিত্য নিয়ে পড়াশোনা করেছি। পড়াশোনার সময় লেখালেখির প্রতি বেশ ঝোঁক ছিল আমার। সেই সব ভালো লাগা আর আগ্রহের জায়গা থেকে বইটি লেখা।’

তিনি বলেন, “আমরা গ্রাম থেকে শহরে আসার পর ভালো একজন বন্ধু খুঁজি। কিন্তু গ্রামের মানুষগুলো কে প্রকৃত বন্ধু তা সহজে বুঝতে পারি না। এক্ষেত্রে অনেকাংশে আমরা কষ্ট পেয়ে থাকি। আবার একটি নতুন সম্পর্কে পরস্পর দু’জন মানুষের আবেগ-অনুভূতি ও বিবেকবোধ থেকে ভালোবাসার কথা বলা হয়েছে। এখানে ছাত্রজীবনে পরিবার ছেড়ে রোভার স্কাউটে গিয়ে রোমাঞ্চকর কষ্টের কথা, সমাজের প্রচলিত কুসংস্কার থেকে বের হয়ে করোনাকালে লাভ ম্যারিজে সিনিয়র মেয়েকে বিয়ের ঝামেলার কথা বলা হয়েছে।”

“বিয়ে করবে না সিদ্ধান্ত নেয়ার পর পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হওয়ার পর সেই মানুষের সঙ্গে প্রেমে জড়ানো ও সম্পর্কে অটুট থাকার কথা বলা হয়েছে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করা প্রভাবশালী পরিবারের এক মেয়ের ভিন্ন জাত-বর্ণের ছেলের প্রেমে পড়া এবং তাকে কাছে পাওয়া না পাওয়ার আকাঙ্ক্ষার কথা তুলে ধরা হয়েছে বইটিতে। এক কথায় এতে রোমাঞ্চ থেকে শুরু করে সবই রাখা হয়েছে। আশা করি পাঠকদের কাছে বইটি ভালো লাগবে”- বলে যোগ করেন এই তরুণ সাংবাদিক।

আধেক জীবন গল্পগ্রন্থটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২০০ টাকা। তবে বইমেলায় ছাড়সহ ১৫০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। মেলার দেশ পাবলিকেশন্সের ৪৬১, ৪৬২ ও ৪৬৩ নং স্টলে পাওয়া যাচ্ছে বইটি। এছাড়া অনলাইনে রকমারি ডটকমেও পাওয়া যাচ্ছে এটি।

প্রসঙ্গত, শাহজাদা সেলিম রেজা বর্তমানে ‘চ্যানেল 24’ এর অনলাইন বিভাগে (ডিজিটাল মিডিয়া) সহ-সম্পাদক হিসেবে বিনোদন বিভাগে কাজ করছেন। এর আগে আরটিভি, দ্য বাংলাদেশ টুডে ও দৈনিক ডেসটিনির অনলাইন বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

এমআই/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]