বিদেশ যেতে সালমান খানের ওপর নিষেধাজ্ঞা

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৫৫ পিএম, ০৫ আগস্ট ২০১৮

মামলা-আদালত যেন সালমান খানের পিছু ছাড়ছেই না। কিছুদিন আগেই দীর্ঘদিন ধরে চলা হিট অ্যান্ড রান মামলা থেকে অব্যহতি পান তিনি। কিন্তু তার কিছুদিন পরই আবার কৃষ্ণ হরিণ হত্যার দায়ে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন ভারতের যোধপুরের আদালত।

তবে সে মামলায়ও ২ দিন জেলে কাটানোর পর জামিনে বেরিয়ে আসেনে এই বলিউড সুপারস্টার। জামিন হলেও নিয়মিত শুনানিতে উপস্থিত থাকতে হতো সালমানকে। আর সর্বশেষ শুনানি অনুষ্ঠিত হয় গতকাল ৪ আগস্ট।

শনিবারের শুনানির পরই সালমানের দেশ ত্যাগের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন আদালত। জানান প্রতিবার দেশ ত্যাগের আগে যোধপুরের আদালতে আবেদন করে অনুমতি নিতে হবে তাকে। অনুমতি পেলেই কেবল দেশ ছাড়তে পারবেন তিনি।

১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিংয়ের জন্য রাজস্থানে যান সালমান। সেখানে রাতের ভ্রমণে বের হয়ে রাজস্থানের যোধপুরের কঙ্কিনি গ্রামে দুটি বিরল প্রজাতির কৃষ্ণ হরিন হত্যার অভিযোগ তোলা হয় সালমানের বিরুদ্ধে। সেই মামলায় ২০০৭ সালে যোধপুর কারাগারে কয়েকদিন বন্দী ছিলেন সল্লু।

তারপর জামিনে মুক্ত হন তিনি। গত বছর এই মামলায় নির্দোষ প্রমাণ হন। কিন্তু পরবর্তীতে এই রায়ের ওপর আবারও আপিল করা হলে কারাদণ্ড ঘোষিত হয় সালমানের বিরুদ্ধে। এরপর ৭ এপ্রিল জামিনে মুক্তিপান বলিউড ‘ভাইজান’।

আরএএইচ/এলএ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :