যে কারণে ভোট দিতে পারবেন না বলিউড তারকারা

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০১৯

নির্বাচন সমবসময়ই উৎসব নিয়ে আসে। ভোটের রায়ে প্রতিনিধি নির্বাচনের মাধ্যমে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব তুলে দেয়া হয়। তাই সব শ্রেণি-পেশার মানুষ ভোটে অংশ নেন। নিজের পছন্দের প্রার্থীর পক্ষে মত প্রদান করেন।

তবে ভারতের চলমান লোকসভা নির্বাচনে বেশ কয়েকজন তারকা ভোটে অংশ নিতে পারবেন না। এমনটাই খবর প্রকাশ করছে দেশটির গণমাধ্যম।

ভারতে এখন চলছে দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ। বাকি আরও ছ’দফা। এরইমধ্যে জানা গেল, আলিয়া ভাটসহ আরও কয়েকজন জনপ্রিয় তারকারা ভোট দিতে পারছেন না পছন্দের প্রার্থীকে।

তাদের মধ্যে অক্ষয় কুমার, দীপিকা পাডুকোনের মতো তারকারাও রয়েছে। কিন্তু কী সেই কারণ? জবাবে জানা গেল একেক তারকার বৈচিত্রময় সমস্যার কথা।

বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সিনেমায় দেশপ্রেমিকের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অক্ষয় কুমার। এছাড়া অনেক সময় দেশের সেনাবাহিনীর পাশে দাঁড়াতেও দেখা গিয়েছে তাকে। কিন্তু দেশপ্রেমিক অক্ষয় কুমার ভোট দিতে পারবেন না এবার। পাঞ্জাবের অমৃতসরে জন্ম হলেও এই অভিনেতার আছে রয়েছে কানাডার পাসপোর্ট। আর সেই কারণেই ভোট দিতে অক্ষম তিনি।

দীপিকা পাড়ুকোনেরও রয়েছে এমন সমস্যা। প্রকাশ পাডুকোনের মেয়ে এবং বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোনের জন্ম ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে। তার রয়েছে ড্যানিশ পাসপোর্ট। এজন্য তারও ভোট দেওয়ার অধিকার নেই ভারতে।

আমির খানের ভাগ্নে তথা বলিউডের অন্যতম অভিনেতা ইমরান খান। তিনিও ভোট দিতে পারবেন না। কারণ আমেরিকার নাগরিক তিনি। সেখানকার পাসপোর্ট রয়েছে তার।

ক্যাটরিনা কাইফও ভোট দিতে পারবেন না ব্রিটিশ নাগরিক হওয়ায়। বলিউডের আরেক অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজও অংশ নিতে পারবেন না চলতি লোকসভা নির্বাচনে। কারণ এই অভিনেত্রীর জন্ম বাহারিনে। শ্রীলঙ্কায় জন্মেছেন তার বাবা। জ্যাকলিনের মা আবার মালয়েশিয়ার নাগরিক।

জন্মসূত্রে আলিয়া ভাটও ব্রিটিশ নাগরিক। তার কাছে ব্রিটেনের পাসপোর্ট আছে। দেশের সংবিধান অনুযায়ী দৈতনাগরিকত্বের অধিকারী কোনো ব্যক্তি সাধারণ নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন না। সেকারণেই ইচ্ছে থাকলেও ভোট দিতে পারবেন না আলিয়া।

এলএ/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :