৫০০ কোটি টাকার সিনেমায় থাকছেন না আনুশকা

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৩ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

‘বাহুবলী’খ্যাত প্রভাস রাম চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন ‘আদিপুরুষ’ নামের সিনেমায়। সে ছবিতে সীতা হচ্ছেন আনুশকা শর্মা। এ খবর প্রকাশ করেছিলো ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। এ নিয়ে বেশ উচ্ছ্বাস দেখা গিয়েছিলো সিনেমাপ্রেমীদের মধ্যে। দক্ষিণের নায়ক ও বলিউডের নায়িকার অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি দেখার অপেক্ষায় ছিলেন সবাই।

তবে সেটি সম্ভবত হচ্ছে না। কারণ ছবিটি করবেন না অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা এমন তথ্য নিশ্চিত করলো বলিউড হাঙ্গামা।

তারা বলছে, প্রভাসের সঙ্গে ‘আদিপুরুষ’ সিনেমার জন্য স্বাক্ষর করেছেন আনুশকা শর্মা, এ খবরটি সত্য নয়। এটি কেবলই গুঞ্জন। আনুশকা এই ছবিটিতে যুক্ত হতে চাইছেন না। পাশাপাশি এ ছবিটি নিয়ে কোনো আলোচনাতেও অংশ নেননি তিনি।

শোনা যাচ্ছে প্রভাসকে নায়ক আর সাইফ আলি খানকে খল নায়ক করে চলতি বছরেই শুটিং শুরু করতে যাচ্ছেন ‘আদিপুরুষ’ ছবির নির্মাতা ওম রাউ। তবে এই সময়ে এ ছবির কাজ কোনোভাবেই করা সম্ভব নয় আনুশকার। কারণ তিনি এখন গর্ভবতী। তার হাতে বেশ কিছু কাজও রয়েছে যেগুলো শিগগিরই তাকে শেষ করতে হবে।

কারণ সন্তান গর্ভে নিয়ে খুব বেশিদিন তিনি কাজের সুযোগ পাবেন না। তাই ঘরবন্দী হওয়ার আগেই বাকি থাকা কাজগুলো সেরে নিতে চান তিনি। এরমধ্যে নতুন করে কোনো ছবিতে যুক্ত হতে চাইছেন না। তবে যদি সেই কাজগুলো হয় আগামী বছরের এপ্রিল মাসের পর তাহলে আপত্তি নেই আনুশকার। চুক্তিবদ্ধ হবেন তিনি।

আপাতত এমনই পরিকল্পনা আনুশকার। তার এই পরিকল্পানিটি তিনি স্বামী বিরাট কোহলির সঙ্গে আলোচনা করেই গ্রহণ করেছেন। আপাতত নিজের অনাগত সন্তান নিয়ে মনযোগী তিনি। তার সুস্থভাবে পৃথিবীতে আগমনের জন্য সবার কাছে প্রার্থনা প্রত্যাশা করছেন তিনি।

এদিকে ‘আদিপুরুষ’ সিনেমায় আনুশকা শর্মার না থাকার বিষয়টি প্রকাশ হওয়ার পর প্রভাসের অনেক ভক্ত দাবি করছেন ‘বাহুবলী’র মতো আবারও ফিরিয়ে আনা হোক প্রভাস ও আনুশকা শেঠি জুটিকে। কেউ কেউ আবার দাবি করছেন কীর্তি সুরেশকে প্রভাসের সঙ্গে দারুণ মানাবে সীতা চরিত্রে। এখন দেখার পালা ছবিটির প্রযোজকগণ ও পরিচালক ওম রাউত কার উপর ভরসা রাখেন।

প্রসঙ্গত, ৫০০ কোটিরও বেশি বাজেটে নির্মিত হবে ‘আদিপুরুষ’। এখানে থাকবে গ্রাফিক্স ও ভিএফএক্সের চোখ ধাঁধানো উপস্থিতি। শোনা যাচ্ছে বিখ্যাত ‘গেম অব থ্রোনস’- এর ডিজিটাল টিম এ ছবির জন্য কাজ করবে।

এ সিনেমা নির্মিত হবে হিন্দি, তামিল, তেলেগু ভাষায়। এছাড়াও কান্নাড়া, ইংরেজি, মালায়ামসহ কিছু ভাষায় এটি ডাবিং করে মুক্তি দেয়া হবে বিশ্বব্যাপী।

এলএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]