বানসালিকে নিয়ে আবেগী দীপিকা

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৫১ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২১

বলিউড বরেণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতা সঞ্জয় লীলা বানসালি। তার সিনেমাগুলো বলিউডকে সমৃদ্ধ করেছে। ‘খামোশি’, ‘হাম দিল দে চুকে সনম’, ‘দেবদাস’, ‘বাজিরাও মাস্তানি’সহ অন্যান্য ছবিগুলো তাকে প্রতিষ্ঠিত করেছে অনন্য মর্যাদায়। দেখতে দেখতে বলিউডে পা রাখার ২৫ বছর পেরিয়ে গেলেন তিনি।

তার ক্যারিয়ারের ২৫ বছর পূর্তিতে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভক্ত অনুরাগীরা। বানসালিকে ভালোবাসা জানিয়েছেন অনেক তারকারাও। তার মধ্যে নজর কেড়েছে ‘রাম লীলা’, ‘পদ্মাবত’ ও ‘বাজিরাও মাস্তানি’ ছবির নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোন।

সঞ্জয়ের টানা তিনটি সিনেমার নায়িকা হওয়া এই অভিনেত্রী লিখেছেন আবেগী এক চিঠি। সোনে বানসালীর সাথে তার কাজের স্মৃতিগুলি তুলে এনেছেন তিনি।

২০০৭ সালে শাহরুখ খানের হাত ধরে দিপীকা ‘ওম শান্তি ওম’ দিয়ে বলিউডে যাত্রা করেন। তখনো তিনি কখনো চিন্তা করেননি সঞ্জয় লীলা নজড় কাড়বেন। দীপিকা তার ইনস্টাগ্রাম নোটে লিখেন, ‘আমার প্রথম চলচ্চিত্র ‘ওম শান্তি ওম’ যখন মুক্তি পায় তখন সঞ্জয় লীলার ‘সাবারিয়া’ও মুক্তি পায় তখন। নবাগত হিসেবে তার সিনেমায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা এমন কোনো চিন্তাই আমার মাথায় কখনো আসেনি। সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে আমার অভিষেকের প্রায় পাঁচ বছর পর আমি এই খ্যাতিমান পরিচালকের সঙ্গে প্রথম মিটিংয়ে বসি।

২০১২ সালের কথা। আমি অত্যন্ত অসুস্থ ছিলাম এবং বিছানায় শুয়ে ছিলাম। আমার ম্যানেজমেন্টের কাছ থেকে একটি ফোন এসেছিল যে সঞ্জয় লীলা বানসালি তোমার সাথে দেখা করতে চায়। আমি খবরটি শুনে পুরোপুরি অবাক হয়ে যাই। এরপর তার ‘রামরীলা’ সিনেমায় আমার প্রথম কাজ করা।’

খ্যাতিমান এই পরিচালককে নিয়ে বলতে গিয়ে দীপিকা আরো জানান, ‘আমি এই বিষয়ে কোনো সন্দেহ ছাড়াই বলছি যে সঞ্জয় লীলা বানসালি না থাকলে আমি আজকের এই অবস্থার অর্ধেকও আসতে পারতাম না! আমি তার সুস্বাস্থ্য, মনের শান্তি এবং সুখ কামনা করি।’

বর্তমানে দীপিকা তার নতুন সিনেমা ‘পাঠান’ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। সিনেমাটিতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান।

এলএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]