এবার পরীমনি-সাকলায়েনের ‘জন্মদিন উদযাপনের’ ভিডিও ভাইরাল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ পিএম, ১০ আগস্ট ২০২১

ঢাকাই সিনেমার নায়িকা পরীমনির মামলার তদন্তকালে তখনকার ডিবি কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েনের প্রেমের সম্পর্ক ফাঁস হওয়ার পর সারাদেশসহ পুলিশে তোলপাড় চলছে। পরীমনি ডিবির এ কর্মকর্তার সঙ্গে তার বাসায় ১৮ ঘণ্টা কাটিয়েছেন বলে সম্প্রতি গণমাধ্যমে খবর আসে।

এর রেশ কাটতে না কাটতেই তিনদিনের মধ্যে পরীমনি ও গোলাম সাকলায়েন শিথিলের একটি নতুন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) সন্ধ্যার দিকে ইলিয়াস হোসাইন নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে আপলোড করা ওই ভিডিওতে দেখা যায়, জন্মদিনের পার্টিতে পরীমনি ও সাকলায়েন কেক কাটছেন।

ভিডিওতে আরও দেখা যায়, তারা একে অপরকে কেক মুখে তুলে খাইয়ে দিচ্ছেন। এছাড়া একটি কেকের খণ্ড মুখে নিয়ে সাকলায়েনের মুখে তুলে দেন পরীমনি। এরপর তারা দুজন ‘হ্যাপি বার্থডে’ গান গায়।

এক মিনিট ৩৮ সেকেন্ডের ভিডিওতে পরীমনিকে কালো-বেগুনি শাড়ি ও সাকলায়েনকে কালো শার্টে দেখা যায়। সাকলায়েনকে কেক খাইয়ে দেয়ার পর পরীমনিকে নাচতেও দেখা যায় ওই ভিডিওতে। মাত্র এক ঘণ্টায় ভিডিওটি এক লাখ ৯৯ হাজার বার দেখা হয়েছে ও ২৭ হাজার লাইক পড়েছে।

এদিকে আজ দুপুরে ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, গোলাম সাকলায়েন শিথিলকে গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি) থেকে বদলি করা হয়েছে। তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েন পরীমনির কোনো মামলা তদারকির সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। সঙ্গত কারণে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে বাহিনীর শৃঙ্খলা ও নৈতিকতা ভঙ্গের কারণে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। একজন বিসিএস ক্যাডার অফিসার এ ধরনের অনৈতিক সম্পর্কে জড়াবে এটি কখনই প্রত্যাশিত নয়। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) থেকে নিবৃত করে নেয়া গোলাম সাকলায়েন শিথিল ও নায়িকা পরীমনির সম্পর্ক তদন্তে তিন সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে পুলিশ সদরদফতর।

কমিটির নেতৃত্বে আছেন- পুলিশ সদরদফতরের অতিরিক্ত ডিআইজি (ট্রেনিং) মিয়া মাসুদ করিম। কমিটির বাকি দুই সদস্য হলেন- ডিএমপির উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন সেন্টারের উপকমিশনার (ডিসি) হামিদা পারভীন ও পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) বিশেষ পুলিশ সুপার (ফরেনসিক) রুমানা আক্তার।

গত শনিবার (৭ আগস্ট) গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) গোলাম সাকলায়েন শিথিলকে ডিবির সব দায়িত্ব থেকে নিবৃত করা হয়। পরে তাকে পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট (পিওএম) পশ্চিমে পদায়ন করা হয়।

পরীমনি গত জুন মাসে বোট ক্লাবে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন অভিযোগ করার পর যে মামলা হয়েছিল, সেটির তদন্তকালে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে যান গোলাম সাকলায়েন শিথিল।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বোট ক্লাবের ১৩ জুনের ঘটনার পর পরীমনি তাকে ধর্ষণচেষ্টা ও শারীরিক নির্যাতন করা হয়েছে অভিযোগ আনলে মামলা হয়। মামলার পরদিনই আসামি হিসেবে ক্লাব নেতা ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদকে রাজধানীর উত্তরার একটি বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। তার সঙ্গে গ্রেফতার হন আরও কয়েকজন সহযোগীও।

টিটি/বিএ/জেআইএম

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]