চাওয়ার চেয়ে বেশি পাচ্ছি : মাহি

নাহিয়ান ইমন
নাহিয়ান ইমন নাহিয়ান ইমন , বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫৫ এএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৭

ঢাকাই শীর্ষ নায়িকা মাহিয়া মাহি। সম্প্রতি তার অভিনীত ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। যৌথ প্রযোজনার বাইরে বলা চলে এখন পর্যন্ত বছরের সবচেয়ে আলোচিত ছবির নায়িকা মাহি। বর্তমানে তিনি মন দেব মন নেব ছবির শুটিংয়ে রয়েছেন লালমনিরহাট। এছাড়া আরও প্রায় হাফ ডজন ছবির কাজ তার ঝুলিতে। মাহির সাম্প্রতিক সাফল্য-ব্যস্ততা নিয়ে কথা বললেন জাগো নিউজের সঙ্গে-

‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবি মুক্তির পর প্রচারণায় আপনাকে দেখা যায়নি কেন?
ঢাকা অ্যাটাক মুক্তি পেয়েছে ৬ অক্টোবর। আমি অন্য ছবির শুটিং এ ২৪ সেপ্টেম্বর লালমনিরহাট এসেছি। তবে প্রচারণায় অংশ নিচ্ছি না এমনটা নয়। আমাকে ফোন করলে সাক্ষাৎকার দিচ্ছি। তাছাড়া সবসময় আপডেট জানার চেষ্টা করছি কেমন যাচ্ছে ছবিটি।

ঢাকা অ্যাটাক দেখেছেন নিশ্চয়ই?
যেদিন মুক্তি পায় ওইদিন রংপুর শাপলা সিনেমা হলে গিয়ে ছবিটি দেখি। বোরকা পড়ে গোপনে ছবি দেখতে গিয়েছিলাম। আমার মা এবং কয়েকজন বন্ধু ছিল সঙ্গে। হলে গিয়ে দেখি টিকিট নেই। কাউন্টারে টিকিট না পেয়ে হতাশ হয়েছিলাম। এ সময় স্থানীয় এক ব্যক্তি আমাদের টিকিটের ব্যবস্থা করে দেন, তবে তা ব্ল্যাকে। দ্বিগুণ দাম দিয়ে টিকিট কিনতে হয়েছিল।

অনেকেই বলছেন ছবিতে আপনার চরিত্র নজর কাড়েনি?
আমি তেমনটা মনে করিনা। ছবিতে আমার উপস্থিতি তুলনামূলক কম হতে পারে, কিন্তু আমি চেষ্টা করেছি চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলার জন্য। এটা প্রেমের কোনো গল্প নয়। একক চরিত্রের আধিপত্যও এখানে নেই। অনেকগুলো চরিত্র মিলেই গল্পটাকে সফল করেছে পর্দায়। আমার চরিত্রটি তাদেরই একজন। সবচেয়ে বড় কথা বছর শেষে হিসেব হবে হিট ছবির তালিকায় আমার নাম এই ছবিটির জন্য থাকবে।

আজকাল নায়িকা প্রধান ছবির বাইরে কাজ করতে চান না। কেন?
কাজ করতে চাই না এটা সত্যি নয়। সত্যিটা হলো নায়িকা প্রধান ছবিতে কাজ করতে বেশি আগ্রহী আমি। সারা দুনিয়ায় নায়িকা নির্ভর গল্প নিয়ে ছবি নির্মিত হচ্ছে। আর আমাদের দেশে নায়িকা কেবল নায়কের সাপোটিং ক্যারেক্টার! এই জায়গাটায় পরিবর্তন আনতে চেষ্টা করছি। বেশ কিছু ছবিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করতে পারছি। এই দেশে নায়িকা হয়ে একসঙ্গে এতগুলো ছবিতে নাম ভূমিকায় কাজ করতে পারা ভাগ্যের ব্যাপার। আমার মনে হয় চাওয়ার চেয়ে বেশি পাচ্ছি আমি। হা হা হা...

জাজ থেকে বের হয়ে যাওয়া আপনার ক্যারিয়ারে কী সঠিক সিদ্ধান্ত ছিল?
আমার হাতে কিন্তু এখন অনেকগুলো ছবি। সবগুলোর শুটিং চলছে। জাজে থাকলে শুধু তাদের ছবিতে কাজ করতে হতো। আমি মনে করিনা জাজ ছেড়ে দেয়া আমার জন্য ভুল সিদ্ধান্ত ছিল।

মনে রেখো ছবিতে নাকি শিডিউল দিচ্ছেন না?
আগে কয়েকবার শিডিউল দিয়েছি। শুটিংয়ের আগ মূহুর্তে জানানো হতো শুটিং ক্যান্সেল। একেক সময় একেক কথা। কখনো নায়কের ভিসা জটিলটা, কখনো প্রযোজকের সমস্যা। এরপর আমার টানা কয়েকদিন বসে থাকতো হতো। কয়েকবারই এমনটা হয়েছে। এখন আমি অন্য ছবির জন্য শিডিউল দিয়েছি। তাহলে দেয়া শিডিউল মিস করি কীভাবে? যখন শিডিউল ফ্রি থাকবে তখন দেব।

সংসার কেমন চলছে?
সবার দোয়ায় খুব ভালো আছি। অপু আমাকে খুব ভালোবাসে। আমাকে হুটহাট সারপ্রাইজ দেয়। আমি খুব এনজয় করি। সবার কাছে দোয়া চাই যেন এভাবেই বাকিটা জীবন একসঙ্গে কাটাতে পারি।

এনই/এলএ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com