আমজাদ হোসেনের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৬ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

ব্রেন স্ট্রোক করে হাসপাতালে ভর্তি আছেন চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি পুরুষ আমজাদ হোসেন। রোববার সকাল ১০টায় তাকে অচেতন অবস্থায় ভর্তি করা হয় এবং আইসিইউতে নেয়া হয়। কিন্তু এখনো তার অবস্থার পরিবর্তন হয়নি। কাটেনি শঙ্কা।

তেজগাঁও ইমপালস হাসপাতালে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন আমজাদ হোসেন। আজ রাত ১২টার আগে চিকিৎসক তার শারীরিক বিষয়ে কোনো রিপোর্ট দেবেন না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন।

তিনি বলেন, ‘সোমবার সকালে আমরা আমজাদ সাহেবের চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তিনি জানালেন, রোগীর অবস্থা আগের মতোই আছে। কিছুই বলা যাচ্ছে না কি হয়। অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়নি। তবে আজ রাত ১২টার পর ডাক্তার এ বিষয়ে কিছু জানাতে পারবেন।’

খোকন আরও বলেন, ‘আমজাদ হোসেনের জনপ্রিয়তা চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবেই বেশি হলেও তিনি আপাদমস্তক একজন শিল্পী। চিত্রনাট্য, অভিনয়সহ নানা শিল্পেই তিনি আমাদের কিংবদন্তি। সবসময় তিনি অভিভাবকের মতো আমাদের আগলে রাখেন। তার মতো গুণী মানুষকে আমরা আরও অনেকদিন আমাদের পাশে চাই। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।’

প্রসঙ্গত গতকাল রোববার সকাল ৯টার দিকে আমজাদ হোসেনের স্ত্রী সুরাইয়া আক্তার আমজাদ হোসেনকে বিছানার নিচে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। কখন তিনি অচেতন হয়েছেন, তা আঁচ করতে পারেননি তিনি। এরপর সকাল ১০টার দিকে তাকে ইমপালস্ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আমজাদ হোসেন ১৯৬১ সালে ‘হারানো দিন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় দিয়ে চলচ্চিত্র শুরু করেন তিনি। তার প্রথম পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘আগুন নিয়ে খেলা’ ১৯৬৭ সালে মুক্তি পায়। পরিচালক হিসেবে ‘নয়নমনি’ (১৯৭৬), গোলাপী এখন ট্রেনে (১৯৭৮), ভাত দে (১৯৮৪) তার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র।

‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ ও ‘ভাত দে’ চলচ্চিত্রের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও অর্জন করেন।

বাংলাদেশ সরকার তাকে সালে দেশের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান একুশে পদক ও স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত করেছে।

এলএ/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :