আইয়ুব বাচ্চুকে ‘জাতীয় রক আইডল’ ঘোষণার দাবি তুলেছেন শিল্পীরা

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১০ পিএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের আইয়ুব বাচ্চুর ভূমিকা অনেক। বিশেষ করে ব্যন্ড সংগীতে উজ্জ্বল নক্ষত্র আলো ছড়িয়ে গেছেন নিরলস ভাবে। তাই আইয়ুব বাচ্চুকে ‘জাতীয় রক আইডল’ হিসেবে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন শিল্পীরা।

গানবাংলা চ্যানেলের ৬ষ্ঠ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে ১৬ ডিসেম্বর প্রথম প্রহরে (রাত ১২টা) বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে ৫ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এই আয়োজন থেকেই শিল্পীরা দাবি জানিয়েছেন আইয়ুব বাচ্চুকে জাতীয় রক আইডল ঘোষণা করা হোক।

রাজধানীর বারিধারা প্রগতি সরণিতে অবস্থিত গান বাংলার নিজস্ব কার্যালয়ে ১৫ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১২টায় কেক কাটার মধ্য দিয়ে শুরু হয় আয়োজন। সারা রাত দেশের শিল্পীরা পালন করেছেন গান বাংলার জন্মদিন। এই আয়োজনের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল বিজয় দিবসের আনন্দ।

বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে দেশের গান জগতের শিল্পী-কুশলী ছাড়াও টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র তারকা, র্যাম্প মডেলসহ আলোচিত শিল্পীরা উপস্থিত ছিলেন। সংগীতশিল্পীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কণ্ঠশিল্পী রফিকুল আলম, তপন চৌধুরী, কুমার বিশ্বজিৎ, মানাম আহমেদ, বাপ্পা মজুমদার, হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল, ইবরার টিপু, দিনাত জাহান মুন্নী, মিলন মাহমুদ, তন্ময় তানসেন, হায়দার হোসেন, পথিক নবী, শফিক তুহিন, বেলাল খান, রমা, পারভেজ, জুয়েল মোর্শেদ, কিশোর, লোপা হোসাইন, ঐশী, বেলী, সঞ্জীব, তাসফি প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের একটি অংশে ছিল সদ্য প্রয়াত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুকে নিবেদন করে বিশেষ পর্ব। এই পর্বের মাধ্যমে বরেণ্য এই শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিশেষ ব্যক্তিবর্গ, শিল্পী-কলাকুশলী ও ভক্তরা। উপস্থিত শতাধিক শিল্পী এসময় একই মঞ্চে গান করেন।

এই মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি প্রস্তাব ওঠে আইয়ুব বাচ্চুকে ‘জাতীয় রক আইডল’ হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার। এছাড়া অনুষ্ঠানে বারী সিদ্দিকীর মেয়ে এলমা সিদ্দিকী তার নতুন ব্যান্ড ‘বাউল বারী’-এর শুভ যাত্রা ঘোষণা করেন।

২০১৩ সালের বিজয় দিবসে (১৬ ডিসেম্বর) দেশের প্রথম এইচডি মিউজিক চ্যানেল হিসেবে গানবাংলা টেলিভিশনের যাত্রা শুরু হয়। দেশি-বিদেশি কণ্ঠশিল্পী ও বাদ্যযন্ত্রীদের সমন্বয়ে চ্যানেলটির ইন্টারন্যাশনাল কোলাবরেশন প্রজেক্ট ‘উইন্ড অব চেঞ্জ’ দেশে ও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বিশেষভাবে আলোচিত হয়েছে।

এমএবি/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]