হিরো আলমের বিরুদ্ধে জুনিয়র মিশার মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২২ পিএম, ২৩ জুলাই ২০২০

শুটিংয়ের টাকা না দিয়ে মারধর করার অভিযোগে আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলমের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন জুনিয়র আর্টিস্ট নয়ন মণ্ডল ওরফে জুনিয়র মিশা।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুর রহমানের আদালতে এ মামলা দায়ের করা হয়। আদালত তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

জুনিয়র মিশার আইনজীবী মকিম মণ্ডল বলেন, হিরো আলমের বিরুদ্ধে নয়ন মণ্ডল ওরফে জুনিয়র মিশা একটি মামলা করেছেন। আদালত মামলাটি ১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

নয়ন মণ্ডল ওরফে জুনিয়র মিশা জাগো নিউজকে বলেন, আমি হিরো আলমের সঙ্গে ‘সাহসী হিরো আলম’ ছবিতে সেকেন্ড ভিলেন (দ্বিতীয় খলনায়ক) হিসেবে অভিনয়ের জন্য ১৫ হাজার টাকা চুক্তি করি। চুক্তি অনুযায়ী গাজীপুরের মনপুরা শুটিং স্পটে অভিনয় করতে যাই। যেখানে কিছু দিন অভিনয় করি। এর মধ্যে ঢাকায় আসার সময় সে আমার হাতে ৫০০ টাকা ধরিয়ে দিয়ে বলেন, টাকা পরে দেব। আমি বাসায় এসে কিছুদিন পর তার মোবাইলে ফোন দেই। সে ফোনে আমাকে একদিন বলে কিসের টাকা পাবি তুই। তুই কোনো টাকা পাবি না।

তিনি আরও বলেন, এরপর সে আমার ফোন ধরত না। এরপর গাজীপুরে ছবির শুটিংস্থলে আমি যাই। টাকা চাইলে হিরো আলম আমাকে শুটিংয়ের দা দিয়ে আঘাত করে। কিল-ঘুষি মারে। আমি সেখান থেকে চলে আসি। এরপর ১৯ জুন এফডিসিতে মানববন্ধনে অংশ নিতে আমি যাই। হিরো আলম আমাকে সেখানে মারধর করেন। হিরো আলমের লোকজনের ভয়ে আমি জীবন নিয়ে শঙ্কায় আছি। তাই আমি আদালতে মামলাটি করি।

সম্প্রতি সুপারস্টার অনন্ত জলিলের সিনেমায় কাজ করা নিয়ে বেশ আলোচনায় রয়েছেন হিরো আলম। অনন্ত জলিলের সিনেমায় কাজ করার জন্য হিরো আলমের সঙ্গে চুক্তি করা হয়। চুক্তি অনুযায়ী হিরো আলমকে সাইনিং মানিও দেন অনন্ত। তবে পরবর্তীতে আচরণগত কারণ দেখিয়ে হিরো আলমকে সিনেমা থেকে বাদ দেন ঢাকাই সিনেমার এ সুপারস্টার। এই নিয়ে হিরো আলমের হয়ে ভিডিও বার্তা দেন বিতর্কিত প্রবাসী সেফাতুল্লাহ ওরফে সেফুদা। এই নিয়ে পাল্টাপাল্টি ভিডিও দেন অনন্ত জলিলও। যদিও শেষ পর্যন্ত এ নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন সেফুদা।

জেএ/এফআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]