রিয়াজের জন্মদিন: বিমানবাহিনী থেকে সিনেমার সফল নায়ক

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৬ এএম, ২৬ অক্টোবর ২০২১

নন্দিত চিত্রনায়ক রিয়াজ। নব্বই দশকের শেষদিকে লাভার বয় খেতাব পাওয়া এই নায়ক বহুমাত্রিক চরিত্রে অভিনয় করে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন সমশ্রেণির দর্শকের প্রিয় অভিনেতা হিসেবে।

আজ ঢাকাই ছবির অন্যতম রোমান্টিক নায়ক রিয়াজের জন্মদিন। ১৯৭২ সালের ২৬ অক্টোবর তিনি জন্মগ্রহণ করেন।

কর্মজীবন শুরু করেছিলেন বিমানবাহিনীতে। সেখান থেকে ঘটনাচক্রে প্রয়াত নায়ক জসীমের হাত ধরে ‘বাংলার নায়ক’ নামের চলচ্চিত্রের মাধ্যমে নায়ক রিয়াজের অভিষেক হয় ১৯৯৫ সালে। ১৯৯৭ সালে মহম্মদ হান্নান পরিচালিত ‘প্রাণের চেয়ে প্রিয়’ ছবির মাধ্যমে জনপ্রিয় নায়কে পরিণত হন এই নায়ক।

এরপর সালমান শাহের মৃত্যুতে যে শূণ্যতা দেখা দেয় প্রযোজক ও পরিচালকরা রিয়াজকে বেছে নেন সেই শূণ্যতা পূরণের প্রচেষ্টায়। শাবনূরের সঙ্গে জুটি বেঁধে আকাশ ছোঁয়া জনপ্রিয়তা পান রিয়াজ। নানা কারণে সেই জুটি ভেঙ্গে গেলে পূর্ণিমার সঙ্গেও জুটি বেঁধে দারুণ সাফল্য পান তিনি।

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করা রিয়াজ উপহার দিয়েছেন ‘নারীর মন’, ‘বিয়ের ফুল’, ‘এই মন চায় যে’, ‘হৃদয়ের আয়না’, ‘প্রাণের চেয়ে প্রিয়’, ‘প্রেমের তাজমহল’, ‘স্বপ্নের বাসর’, ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’, ‘হৃদয়ের বন্ধন’, ‘দুই দুয়ারী’, ‘কাজের মেয়ে’, ‘শ্যামল ছায়া’, ‘দারুচিনি দ্বীপ’, ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ’, ‘সাবধান’, ‘মনের মাঝে তুমি’, ‘হৃদয়ের কথা’, ‘খবরদার’, ‘লাল দরিয়া’, ‘মিলন হবে কতদিনে’, ‘শাস্তি’, ‘কি যাদু করিলা’, ‘হাজার বছর ধরে’, ‘পাগল তোর জন্য’সহ অসংখ্য ব্যবসা সফল ও প্রশংসিত সিনেমা।

এছাড়াও রিয়াজ ভারতীয় চলচ্চিত্রকার ও অভিনেতা মহেশ মাঞ্জরেকারের ‘ইট ওয়াজ রেইনিং দ্যাট নাইট’ নামে একটি ইংরেজি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন। কলকাতার সঙ্গে বেশ কিছু যৌথ প্রযোজনার ছবিতেও দেখা গেছে তাকে। যার মধ্যে 'মনের মাঝে তুমি' সিনেমার সাফল্য উল্লেখ করার মতো।

প্রয়াত কথাসাহিত্যিক ও নন্দিত নির্মাতা হুমায়ুন আহমেদের স্নেহভাজন ছিলেন নায়ক রিয়াজ। এ নির্মাতার 'দুই দুয়ারী', 'শ্যামল ছায়া' সিনেমায় রিয়াজকে দেখা গেছে৷ এছাড়াও হুমায়ুন আহমেদের বহু নাটকে অভিনয় করেছেন রিয়াজ। যার মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখ করা যায় 'উড়ে যায় বকপক্ষী' নামের ধারাবাহিকটির কথা৷

এছাড়াও অনেক নির্মাতাদের সঙ্গে ছোট পর্দায় অনেক জনপ্রিয় নাটক উপহার দিয়েছেন তিনি৷ যার মধ্যে আবুল হায়াত পরিচালিত 'জোছনার ফুল' নাটকটি ছিলো বিটিভিতে তুমুল জনপ্রিয়।

'ইউরো কোলা', 'বার্জার', 'নাসির গ্লাস', 'ড্যানিশ কন্ডেন্স মিল্ক'সহ বেশ কিছু মানসম্পন্ন বিজ্ঞাপনেও দেখা গেছে রিয়াজকে। যা তার ক্যারিয়ারকে সমৃদ্ধ করেছে৷

একজন সফল উপস্থাপক রিয়াজকেও পাওয়া গেছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, বিটিভির আনন্দমেলাসহ বহু অনুষ্ঠানে৷

অনেকদিন ধরেই সিনেমাতে নেই তিনি। অনিয়মিত শোবিজে৷ তবে সম্প্রতি আবারও নতুন করে ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন। ভালো গল্প ও চরিত্র পেলে রিয়াজের দেখা মিলতে পারে চলচ্চিত্রে।

চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। চলচ্চিত্রগুলো হলো- ‘দুই দুয়ারী’ (২০০০), ‘দারুচিনি দ্বীপ’ (২০০৭) ও ‘কি যাদু করিলা’ (২০০৮)।

বর্তমানে স্ত্রী তিনা ও একমাত্র কন্যা আমীরাকে নিয়ে সুখের সংসার রিয়াজের৷

এলএ/এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]