ফ্যাটি লিভারে ভুগছে দেশের সাড়ে ৪ কোটি মানুষ

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:১২ পিএম, ৩১ মে ২০১৮

* গ্রামের স্থূলকায় নারীরা সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে
* ৪৫ থেকে ৫৪ বছর বয়সীদের মধ্যে প্রাদুর্ভাব বেশি
* উচ্চআয়ের ব্যক্তিদের আক্রান্ত হওয়ার হার প্রায় দেড় গুণ বেশি
* খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাত্রার পরিবর্তনে বাড়ছে প্রকোপ

দেশে ফ্যাটি লিভার বা লিভারে চর্বি রোগে আক্রান্ত সাড়ে ৪ কোটি মানুষ। অর্থাৎ মোট জনসংখ্যার ৩৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ লোক এ রোগে ভুগছে। ওজন বেশি হলে এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। এটি সিরোসিস ও লিভার ক্যান্সারের অন্যতম কারণ।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশে ফ্যাটি লিভারের প্রাদুর্ভাব ও কারণ’ শীর্ষক এক বৈজ্ঞানিক সেমিনারে এক গবেষণা প্রতিবেদনে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়। প্রথম আন্তর্জাতিক ‘ন্যাশ’দিবস উদযাপন উপলক্ষে এই সেমিনারের আয়োজন করে হেপাটোলজি সোসাইটি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) লিভার বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. শাহিনুল আলমের নেতৃত্বে এই গবেষণা কার্যক্রমে বিএসএমএমইউ, বারডেম হাসপাতাল ও ফ্লোরিডা ইউনিভার্সিটি আমেরিকার গবেষকরা অংশ নেন। গবেষণাটি পৃথিবী বিখ্যাত জন উইলি প্রকাশনীর জার্নাল অব গ্যাস্ট্রো এন্টারোলজি অ্যান্ড হেপাটোলজি’র জানুয়ারি সংখ্যায় অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রকাশিত হয়।

গবেষক দলটি ফ্যাটি লিভার ডিজিস বা লিভারে চর্বি রোগের প্রাদুর্ভাব নির্ণয় করতে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন এলাকা এবং দেশের বৃহত্তম চার বিভাগের ৪টি জেলা শহর ও ৪টি উপজেলা শহরে এই গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে। এ গবেষণা ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে শুরু হয়। আর তথ্য সংগ্রহ করা হয় ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাস পর্যন্ত। সর্বমোট ২ হাজার ৭৮২ জন সুস্থ ও স্বাভাবিক কর্মক্ষম ব্যক্তি এই গবেষণা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করার সম্মতি প্রদান করেন। তাদের মধ্যে ১ হাজার ৬৯৪ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৮৮ জন নারী ছিলেন। অংশগ্রহণকারীদের বয়সসীমা ছিল ১৮ থেকে ৮৫ বছর এবং তাদের গড় বয়স ছিল ৩৪ বছর।

Chart-1

গবেষণায় দেখা গেছে, গ্রামের স্থূলকায় নারীরা সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে (৭৩ দশমিক ২১ শতাংশ) আছে। ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের (৭১ শতাংশ) এবং উচ্চ রক্তচাপ আক্রান্তদের মধ্যে (৬৩ শতাংশ) লিভারে চর্বি রোগের প্রাদুর্ভাব রয়েছে।

এ গবেষণায় প্রাপ্ত তথ্য মতে, স্থূলতায় আক্রান্তদের ৬৪ শতাংশ লিভারে চর্বি রোগে আক্রান্ত। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে লিভারে চর্বি রোগের ঝুঁকি বাড়ে। ৪৫ থেকে ৫৪ বছর বয়সীদের মধ্যে এই রোগের প্রাদুর্ভাব (৫৫ শতাংশ) সবচাইতে বেশি।

এছাড়া স্থূলতায় আক্রান্ত হলে ১০ দশমিক ৭১ গুণ ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের ঝুঁকি প্রায় ২ দশমিক ৭১ গুণ বেশি বলে গবেষণায়ে উঠে এসেছে। এই গবেষণায় বিবাহিতদের মধ্যে লিভারে চর্বি রোগের প্রাদুর্ভাব বেশি দেখা গেছে।

যাদের আয় কম তাদের তুলনায় উচ্চআয়ের ব্যক্তিদের আক্রান্ত হওয়ার হার প্রায় দেড় গুণ বেশি। তবে নারী-পুরুষ এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা ভেদে রোগের প্রাদুর্ভাবে কোনো ভিন্নতা দেখা যায়নি। মূলত খাদ্যাভ্যাস এবং জীবনযাত্রার ধরনে পরিবর্তনের কারণে দিন দিন ফ্যাটি লিভার রোগের প্রকোপ বাড়ছে।

সেমিনারে জানানো হয়, এসব তথ্য বাংলাদেশ এবং পাশ্ববর্তী দেশগুলোতে পরিচালিত আগের গবেষণা কার্যক্রমগুলোর সঙ্গে সংগতিপূর্ণ। তবে বাংলাদেশে পরিচালিত আগের গবেষণাগুলো মূলত হাসপাতাল নির্ভর ছিল। এটাই প্রথম গবেষণা যা দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রতিনিধিত্বমূলক জনগোষ্ঠীর কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছে। নতুন এই গবেষণালব্ধ তথ্য লিভারে চর্বি রোগ নিয়ন্ত্রণ এবং এই রোগে আক্রান্তদের চিকিৎসাসেবার আওতায় নিয়ে আসতে গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনামূলক ভূমিকা রাখবে। এ ছাড়া লিভার রোগজনিত মৃত্যু কমাতে এ গবেষণায় প্রাপ্ত তথ্য বিশেষ সহযোগিতা করবে। সর্বোপরি দেশের আপামর জনগোষ্ঠীকে লিভারে চর্বি রোগজনিত জটিলতা থেকে রক্ষা করতে এ গবেষণা গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা দেবে। সুখের বিষয় হচ্ছে, জনসচেতনতা সৃষ্টি করে জীবনযাত্রার ধরন পরিবর্তনের মাধ্যমে ফ্যাটি লিভার রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব।

Chart-2

সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন হেপাটোলজি সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক মবিন খান। প্রধান অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) লিভার বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নূরুদ্দীন আহমদ এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন ভয়েস অব আমেরিকার বাংলাদেশ প্রতিনিধি আমীর খসরু। বিশেষজ্ঞ আলোচক হিসেবে মতামত উপস্থাপন করেন ন্যাশনাল লিভার ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের সেক্রেটারি জেনারেল অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, স্কয়ার হাসপাতালের কনসালটেন্ট যথাক্রমে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) অধ্যাপক ডা. শেখ বাহার হোসেন ও ডা. মোতাহার হোসেন। গবেষণা দলের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন ডা. মো. শাহিনুল আলম, ডা. গোলাম আজম ও ডা. মো. গোলাম মোস্তফা।

সেমিনারে বিশেষজ্ঞরা বলেন, সিরোসিস ও লিভার ক্যান্সারের অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে লিভারে চর্বি জমাজনিত প্রদাহ। চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় একে বলে, স্টিয়াটোহেপাটাইটিস। অতিরিক্ত চর্বি জমা হওয়ার কারণে লিভার বা যকৃতে যে প্রদাহের সৃষ্টি হয় তাকেই স্টিয়াটোহেপাটাইটিস বা লিভারে চর্বি জমাজনিত প্রদাহ বলে। এই রোগের আগের স্তরের নাম হচ্ছে, ফ্যাটি লিভার বা লিভারে চর্বি রোগ। লিভার বা যকৃতে প্রদাহ সৃষ্টি করা ছাড়াও লিভারের চর্বি রোগের আরও বেশকিছু খারাপ দিক রয়েছে। এ রোগটি হৃদরোগ, ডায়াবেটিস এবং শরীরে ইনসুলিন হরমোনের কার্যকারিতা কমে যাওয়ার সঙ্গে সরাসরি সম্পর্কিত। আমাদের দেশে আশঙ্কাজনক হারে এ রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়ছে।

জেডএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :