রোহিঙ্গাদের জন্য ২১ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করেছে তুরস্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:১৮ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৭
রোহিঙ্গাদের জন্য ২১ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করেছে তুরস্ক

রাখাইন রাজ্য ছেড়ে পালিয়ে এসে বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের জন্য ২১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সংগ্রহ করেছে তুরস্ক। তুরস্কের দুর্যোগ ও জরুরী ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের প্রধান মেহমেট গুল্লুওগলু আনাদলু এজেন্সিকে এ কথা জানান।

মেহমেট গুল্লুওগলু জানান, রোহিঙ্গাদের সহায়তার জন্য তারা ১৬ দশমিক দুই মিলিয়ন মার্কিন ডলার ত্রাণ সংগ্রহ করেছেন। এছাড়া তুরস্কের রেড ক্রিসেন্ট পাঁচ দশমিক চার মিলিয়ন মার্কিন ডলার ত্রাণ সংগ্রহ করেছে।

বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের এসব অর্থ সহায়তার জন্য তারা অপেক্ষা করছেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে রোহিঙ্গাদের সহায়তার জন্য তিনশ ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার তহবিল সংগ্রহ হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। তার মধ্যে ৩২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সহায়তা ঘোষণা দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও পুলিশের বেশ কিছু তল্লাশি চৌকিতে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসার) হামলার জেরে তাণ্ডব শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। ২৫ আগস্টের পর থেকে ছয় লাখ তিন হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলির মতে, সংঘর্ষে তিন হাজারের বেশি রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে। মেহমেট গুল্লুওগলু জানান, রোহিঙ্গাদের সহায়তার জন্য তুরস্কের নাগরিকদের প্রতি অাহ্বান জানানো হয়। সেখানকার কেউ তিন ডলার সহায়তা করতে চাইলে ২৮৬৮ নাম্বারে ইংরেজিতে আরাকান লিখে বার্তা পাঠালেই ব্যাংক থেকে অর্থ চলে যাবে।

রাখাইন রাজ্যে নৃশংস হত্যাকাণ্ডকে পাঠ্যপুস্তকে উল্লিখিত গণহত্যার উদাহরণের সঙ্গে তুলনা করেছে জাতিসংঘ। রাখাইন রাজ্যে গণহত্যা, দলগত ধর্ষণ, নির্যাতন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের শক্ত প্রমাণ রয়েছে জাতিসংঘের হাতে। জাতিসংঘের তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেখানে মানবাধিকার চরমভাবে লঙ্ঘিত হয়েছে।

সূত্র : ডেইলি সাবাহ

কেএ/আইআই