‘নারীদের যৌন হয়রানি মানবতার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৪৭ এএম, ২৭ নভেম্বর ২০১৭

নারীদের শারীরিকভাবে নির্যাতন ও যৌন হয়রানি থেকে রক্ষা করতে তুরস্কের সরকার আগামী মাসে নতুন ধরনের পদক্ষেপ নেবে। রোববার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান এ কথা জানিয়েছেন।

নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা নির্মূলের জন্য আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে গত রোববার এক বিশাল সমাবেশে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান জানান, ‘নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতা করার অর্থ মানবতার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা।’

তিনি আরও জানান, ‘যারা এই বিশ্বাসঘাতকতা করবে, তাদেরকে অবশ্যই শাস্তি দেয়া হবে।’ সমাজে নারীদের গুরুত্ব নিয়েও বিস্তর আলোচনা করেন তিনি।

এরদোয়ানের ভাষায়, ‘সমাজে কোনো নারী না থাকা মানে অর্ধেক সমাজ সেখানে অনুপস্থিত।’ নারী ছাড়া একটি সমাজ অনেকটাই অদৃশ্য বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

দেশটির পারিবারিক ও সামাজিক নীতিমালা বিষয়ক মন্ত্রণালয় যৌন হয়রানি বিষয়ক ২০ হাজারের বেশি মামলার তদন্ত করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

জাতিসংঘের হিসাবমতে, এক-তৃতয়াংশ নারী তাদের জীবদ্দশায় শারীরিকভাবে নির্যাতন কিংবা যৌন হয়রানির শিকার হয়। জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরাস গত শনিবার এক বিবৃতিতে জানান, ‘সারাবিশ্বে নারীরা যেনো সব ধরনের হয়রানি, অনৈতিক চর্চা ও সহিংসতা থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীনভাবে বাঁচতে পারে, সেজন্য সকলের একযোগে কাজ করা দরকার।

সূত্র : আল জাজিরা

কেএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :