নাজিবের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে নগদ অর্থ বিলাসবহুল জিনিস জব্দ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪৩ পিএম, ১৮ মে ২০১৮

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের বেশ কিছু অ্যাপার্টমেন্টে অভিযান চালানো হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, তারা অভিযান চালিয়ে নগদ অর্থ, কয়েকশ বক্স বিলাসবহুল জিনিস এবং বৈদেশিক মুদ্রা সম্বলিত বহু হ্যান্ডব্যাগ জব্দ করা হয়েছে। খবর বিবিসি।

বিনিয়োগ তহবিল ‘ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভলপমেন্ট বরহাদ’ (ওয়ানএমডিবি) থেকে ৭০ কোটি ডলার আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে নাজিবের বিরুদ্ধে। ২০১৫ সাল থেকেই তার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়। পুলিশ বলছে কুয়ালালামপুরে নাজিবের অ্যাপার্টমেন্টে চালানো এসব অভিযান ওয়ানএমডিবির তদন্তের অংশ।

ওয়ানএমডিবি দুর্নীতি কেলেঙ্কারির অভিযোগেই সাম্প্রতিক সময়ে নির্বাচনে হেরে গেছেন নাজিব রাজাক। দীর্ঘদিন পর রাজনীতিতে ফিরে চমক দেখিয়ে জনগণের ভোটে নতুন করে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়েছেন মাহাথির মোহাম্মদ।ওয়ানএমডিবি ফান্ডের লাখ লাখ ডলারের কোনো হিসাব পাওয়া যায়নি।

৭০ কোটি ডলার নিজের পকেটে পুরেছেন এমন অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে আসছেন নাজিব রাজাক। তবে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন কর্তৃপক্ষ নাজিবকে অভিযোগ থেকে মুক্তি দিলেও বেশ কিছু দেশে তার বিরুদ্ধে এখনও দুর্নীতি তদন্ত চলছে।

মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণের পরই মাহাথির মোহাম্মদ নাজিবের বিরুদ্ধে আবারও দুর্নীতি তদন্ত শুরুর ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, তার বিশ্বাস আত্মসাৎ হওয়া অর্থ ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে। নাজিব রাজাক এবং তার স্ত্রীর বিদেশে সফরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। নাজিবের অফিস, ব্যক্তিগত বাসভবন এবং তার বেশ কিছু অ্যাপার্টমেন্টে অভিযান চালানো হয়েছে।

শুক্রবার মালয়েশিয়ার দুর্নীতি দমন পুলিশের প্রধান অমর সিং বলেন, অভিযানে তারা ২৮৪টি বাক্স ভর্তি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের দামি হ্যান্ডব্যাগ জব্দ করেছেন। তিনি বলেন, আমাদের কর্মকর্তারা এসব ব্যাগ পরীক্ষা করে দেখেছেন। ৭২টি ব্যাগের ভেতর থেকে গহনা, দামি ঘড়ি এবং বিপুল পরিমাণ মালয়েশিয়ার রিঙ্গিত ও মার্কিন ডলার জব্দ করা হয়েছে।

তবে ঠিক কি পরিমাণ গহনা উদ্ধার করা হয়েছে তা এখনই বলা সম্ভব নয় বলে উল্লেখ করে অমর সিং বলেন, আমরা বাক্স ভর্তি গহনা জব্দ করেছি। তাই এটা বলতে পারি যে পরিমাণটা অনেক বেশি।

টিটিএন/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :