সন্তান জিম্মি, মায়েদের বাধ্য করা হচ্ছে যৌনকর্মে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৮ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

উত্তর আমেরিকার দেশ মেক্সিকোতে দরিদ্র মেয়েদের জিম্মি করে যৌনকর্মে বাধ্য করা হচ্ছে জানিয়েছে ‘কোয়ালিশন অ্যাগেনস্ট ট্র্যাফিকিং ইন ওমেন’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান।

প্রতিষ্ঠানটির ল্যাটিন অ্যামেরিকার আঞ্চলিক পরিচালক টেরেসা উলুয়া পাঁচ বছরে যৌনপাচারের শিকার প্রায় চারশ নারীর অভিজ্ঞতা থেকে তথ্য জানিয়েছেন।

থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশনকে তিনি জানান, সাধারণত ১৫ থেকে ২৫ বছরের দরিদ্র মেয়েদের চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে থাকে পাচারকারীরা। এরপর তাদের রাস্তায় কিংবা পতিতালয়ে যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করতে বাধ্য করা হয়।

অনেক সময় পাচারকারীরা মেয়েদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তাদের বিয়ে করে। পরে ওই মেয়েরা সন্তানের জন্ম দিলে তাদেরকে সন্তানের কাছ থেকে সরিয়ে নিয়ে যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করতে বাধ্য করা হয়।

মেয়েরা যদি যৌনকর্মী হিসেবে তাদের সাপ্তাহিক কোটা পূরণ না করে, কিংবা তারা যদি কাজ করতে অনিচ্ছুক হয় অথবা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে, তাহলে তাদের সন্তানদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া কিংবা ক্ষতি করার হুমকি দেয়া হয়।

দেশটির কর্তৃপক্ষ গত ১০ বছরে পুয়েবলা ও লাক্সকালা রাজ্যে যৌনকর্মে বাধ্য করাসহ মানবপাচারের ১৬৯টি মামলা তদন্ত করেছে।

মানবাধিকারকর্মী টেরেসা উলুয়া বলেন, ‘কিন্তু মেয়েরা যদি জানে তাদের সন্তান এখনো পাচারকারীদের কাছে আছে, তাহলে তারা কথা বলবে না। লাক্সকালা রাজ্যে যৌনপাচার ব্যবসাটি প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম ধরে চলে আসছে। ওই রাজ্যে এটা অনেকটা পারিবারিক ব্যবসার মতো।’

বিএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :