আশ্রয়কেন্দ্র কেড়ে নিলো এক ডজন প্রাণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫১ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০১৮

ভারতের পূর্বাঞ্চলের উড়িষ্যা প্রদেশে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্ট ভূমিধসে একটি আশ্রয়কেন্দ্র ভেঙে পড়ে অন্তত এক ডজন মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। শনিবার দেশটির কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে মার্কিন বার্তাসংস্থা এপি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ভারতের জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলা বাহিনীর (এনডিআরএফ) মুখপাত্র কৃষ্ণ কুমার বলেন, উড়িষ্যা প্রদেশের গজপতি জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের ওই আশ্রয় কেন্দ্রে ত্রাণ কর্মকর্তারা পৌঁছেছেন। প্রদেশে ঘূর্ণিঝড় তিতলির তাণ্ডবে প্রাণহানির একদিন পর শুক্রবার ভারী বর্ষণের কারণে ভূমিধসের ঘটনা ঘটে।

ঘূর্ণিঝড় তিতলির আঘাত থেকে বাঁচতে প্রত্যন্ত গ্রামগুলো থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়া হয়েছিল। বৃহস্পতিবার বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার বাতাসের বেগে অন্ধ্রপ্রদেশ ও উড়িষ্যায় তাণ্ডব চালায়।

আরও পড়ুন : শিশু জয়নবের ধর্ষককে ফাঁসিতে ঝুলাচ্ছে পাকিস্তান

তিতলির তাণ্ডবে অন্ধ্রপ্রদেশে ৮ ও উড়িষ্যায় একজনের প্রাণহানি ঘটে। এর একদিন পর গজপতি জেলার আশ্রয়কেন্দ্র ধসে ১২ জন মারা গেছেন।

ভারতীয় সরকারি বার্তাসংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে (পিটিআই) রাজ্যের ত্রাণ কর্মকর্তা বি পি শেঠি বলেন, আশ্রয়কেন্দ্র ধসে ১২ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আরো ৪ জন ধ্বংসস্তুপের নিচে চাপা পড়েছেন।

তিনি বলেন, প্রত্যন্ত ওই অঞ্চলে পৌঁছানোর জন্য রাস্তায় উপড়ে গাছ পরিষ্কার করছেন উদ্ধারকারী কর্মকর্তারা। বঙ্গোপসাগরের উপকূলের ঘূর্ণিঝড় প্রবণ এলাকায় অবস্থিত ভারতের উড়িষ্যা প্রদেশ। ১৯৯৯ সালে প্রলয়ঙ্করী এক ঘূর্ণিঝড়ে ১৫ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটে এই প্রদেশে।

সূত্র : এপি।

এসআইএস/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :