ফেসবুকে প্রেম করে ৬ বছর কারাভোগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩৬ পিএম, ২২ ডিসেম্বর ২০১৮

হামিদ আনসারি নামের এক ভারতীয় নাগরিক। ফেসবুকে প্রেম করেছিলেন পাকিস্তানি এক তরুণীর সঙ্গে। প্রেমের টানে সব বাধা বিপত্তি পেরিয়ে ছুটে যান পাকিস্তানে। কিন্তু পাকিস্তানে যাওয়ার পর দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই ও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর আদালত তার ছয় বছরের কারাদণ্ড দেয়। সম্প্রতি পাকিস্তান থেকে ছাড়া পেয়ে দেশে আসার পর আনসারি ফেসবুকে প্রেম না করার পরামর্শ দিয়েছেন।

চলতি সপ্তাহে নানা বাধাবিঘ্ন কাটিয়ে দেশে ফেরেন তিনি। শুক্রবার তিনি সবার উদ্দেশে পরামর্শ দেন যেন কেউ তার এমন ঘটনাকে অনুসরণ করে ফেসবুকে প্রেম না করেন। বার্তাসংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

২০১২ সালে হামিদ আনসারিকে ভারতীয় গুপ্তচর সন্দেহে আটক করা হয়। ভুয়া পরিচয়পত্র দেখানোর অভিযোগে ২০১৫ সালে তিন বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয় দেশটির আদালত।

২০১২ সালে মুম্বাইয়ের বাসিন্দা হামিদ আনসারির সঙ্গে ফেসবুকে এক পাকিস্তানি মেয়ের বন্ধুত্ব হয়। বন্ধুত্বের সম্পর্ক এক সময় প্রেমে রুপ নেয়। তার সঙ্গে দেখা করতে আফগানিস্তান হয়ে পাকিস্তান প্রবেশ করেন আনসারি। কিন্তু গুপ্তচর সন্দেহে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই ও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

দীর্ঘদিন খুঁজে না পেয়ে আনসারির পরিবারের পক্ষ থেকে আদালতে পিটিশন দাখিল করা হয়। হাই কোর্ট জানায়, পাকিস্তান সেনা ও সামরিক আদালতে বিচারাধীন রয়েছেন হামিদ আনসারি। এরপর তাকে ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু করে ভারত। অবশেষে ছয় বছর কারাভোগ শেষে দেশে ফেরেন তিনি।

বার্তাসংস্থা এএফপি’কে হামিদ আনসারি বলেন, ‘আগন্তুকের জন্য কোনোভাবেই আবেগপ্রবণ হওয়া যাবে না। ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোনোভাবেই প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়া যাবে না।

এসএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]