অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকাকে গুলি প্রেমিকের, পেটেই সন্তানের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৫৬ পিএম, ৩০ মার্চ ২০১৯

এক ব্যক্তি তার অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকাকে গুলি করে পেটে থাকা বাচ্চাকে হত্যা করেছেন। তারপর তিনিও আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। গুলিবিদ্ধ ওই নারী বেঁচে গেলেও তার অবস্থা এখন আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছে পুলিশ। গত শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে পাকিস্তানের করাচিতে ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানিয়েছে দৈনিক ডন।

অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকা ইকরা ওরফে জাভেরিয়াকে হত্যার উদ্দেশে গুলি করা ৩৪ বছর বয়সী ওই ঘাতকের নাম কাশান লোদি। করাচির ইউপি মোর নামক এলাকার একটি ফ্ল্যাটের ভেতর তাকে গুলি করা হয়। প্রেমিকাকে গুলি করার পর একই অস্ত্র দিয়ে তিনিও আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

পাকিস্তনের দৈনিক ডন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ঘাতক সেই প্রেমিক ও তার অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকা মারাত্মকভাবে বুলেটবিদ্ধ হয়েছেন। তাদের দুজনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক। স্থানীয় আব্বাসি শহীদ হাসপাতালে তারা এখন চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুন>> হোটেলের বাথরুমে সন্তান প্রসব করে বিপাকে

নিউ করাচির স্টেশন হাউজ কর্মকর্তা তাহির খান ডনকে বলেছেন, প্রেমিকের ছোড়া গুলিতে বুলেটবিদ্ধ ইকরা সন্তান জন্মদানের খুব কাছাকাছি ছিলেন। আগামী শনিবার তার সন্তান প্রসবের সম্ভাব্য তারিখ ছিল বলেও জানিয়েছেন তিনি।

তাহির খান আরও জানান, আনুমানিক তিন মাস আগে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় ইকরার। তার স্বামী এখন দুবাইয়ে বসবাস করছেন। বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকেই সেখানে বাবার সঙ্গে থাকছে তাদের চার বছর বয়সী একমাত্র ছেলে সন্তান।

তিনি জানিয়েছেন, বিবাহ বিচ্ছেদের পর গত কিছুদিন ধরে করাচির সেই ফ্লাটে বসবাস করতেন ইকরা। সেখানে তার সঙ্গে ছিল বসবাস করতো তার প্রেমিকও। তবে কেন প্রেমিকার ওপর এমন হামলা করলেন প্রেমিক তা জানতে পারেনি পুলিশ।

এসএ/এমএস