ইরানে সিআইএর ১৭ গুপ্তচর আটক, কয়েকজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০৯ পিএম, ২২ জুলাই ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) হয়ে কাজ করার দায়ে ১৭ গুপ্তচরকে আটকের পর তাদের কয়েকজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে ইরান। সোমবার ইরানি সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত ছবিতে সন্দেহভাজন এই গুপ্তচরদের সঙ্গে সিআইএ'র কর্মকর্তাদের দেখা যায়। তেহরানের এই অভিযোগের ব্যাপারে তাৎক্ষণিকভাবে সিআইএ কিংবা যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

গত জুনে ইরান সিআইএ গুপ্তচরদের একটি চক্র ভেঙে ফেলার ঘোষণা দেয়। তবে সোমবারের এই ঘোষণার সঙ্গে সেই চক্রের কোনো সম্পর্ক আছে কিনা তা এখনো পরিষ্কার নয়।

আরও পড়ুন : উ. কোরিয়ায় নির্বাচন : ভোট পড়েছে ৯৯.৯৮ শতাংশ

ইরান এমন এক সময় সিআইএ গুপ্তচরদের আটক এবং মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের ঘোষণা দিল; যার তিন মাস আগে দুই দেশের মাঝে চরম উত্তেজনার শুরু হয়। তেহরানের সঙ্গে ছয় বিশ্ব শক্তির পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বেরিয়ে যাওয়ার পর গত মে মাসে ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ওয়াশিংটন।

উত্তেজনার মাঝেই গত সপ্তাহে হরমুজ প্রণালীর কাছে আন্তর্জাতিক সমুদ্রসীমা লঙ্ঘনের দায়ে ব্রিটেনের একটি তেলবাহী ট্যাঙ্কার আটক করে ইরান। এর আগে গত ৪ জুলাই ব্রিটিশ রয়্যাল মেরিন ইরানের একটি তেল ট্যাঙ্কার আটক করে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত দেশটির গোয়েন্দা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ২০১৯ সালের মার্চে শেষ হওয়া ইরানি ক্যালেন্ডার বর্ষে ১৭ গুপ্তচরকে আটক করা হয়।

আরও পড়ুন : যুক্তরাষ্ট্রে ভাষণ দিতে গিয়ে বিপাকে ইমরান খান

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, শনাক্ত গুপ্তচররা ইরানের অর্থনৈতিক, পারমাণবিক, অবকাঠামোগত, সামরিক ও সাইবার ক্ষেত্রের মতো স্পর্শকাতর এবং গুরুত্বপূর্ণ বেসরকারি খাতে নিয়োজিত ছিল... সেখান থেকে তারা বিশেষ গোপনীয় তথ্য সংগ্রহ করেছিল।

পৃথক এক প্রতিবেদনে ইরানের আধা-সরকারি বার্তাসংস্থা ফার্স নিউজ অ্যাজেন্সি দেশটির গোয়েন্দা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বলছে, গ্রেফতারকৃতদের কয়েকজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। সোমবার ইরানি একটি টেলিভিশনে প্রচারিত প্রামাণ্যচিত্রে দেখা যায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতে এক ইরানি নাগরিককে নিয়োগ দিচ্ছেন সিআইএর এক কর্মকর্তা।

সূত্র : রয়টার্স।

এসআইএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :