সাত বছরের ছেলের মুখে ৫২৬টি দাঁত!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩৮ পিএম, ৩১ জুলাই ২০১৯
ছেলেটির মুখের ভেতর থেকে পাওয়া দাতগুলো এভাবে বিছিয়ে রাখা হয়েছে। ছবি : এনডিটিভি

চোয়ালের নীচ ফুলে ওঠায় ছেলের দাঁতে পোকা হয়েছে ভেবেছিলেন বাবা-মা। কিন্তু সাত বছর বয়সী ছেলেকে নিয়ে তাদের ভুল ভাঙল ডাক্তারের কাছে গিয়ে। পোকা নয়, অস্ত্রোপচার করে ছেলেটির মুখ থেকে ৫২৬টি দাঁত বার করেছেন চিকিৎসকরা।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদেনে জানানো হয়েছে, তামিলনাডু রাজ্যের চেন্নাইয়ের সবিতা ডেন্টাল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে অবিশ্বাস্য এই ঘটনা ঘটেছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ছেলেটির বয়স যখন তিন বছর তখনই চোয়ালের নীচে সামান্য ফোলা ভাব লক্ষ্য করেন তার বাবা-মা।

সামান্য ফোলা হলেও ছেলের মুখের ভেতর অস্বাভাবিক কিছুই লক্ষ্য না করায় বিষয়টি নিয়ে বিশেষ মাথা ঘামাননি। এ ছাড়া ডাক্তারের কাছে যেতে রাজি হয়নি ছেলেটিও। কিন্তু সম্প্রতি ফোলা ভাব বেড়ে গেলে ছেলেকে নিয়ে হাসপাতালে যান ওই দম্পতি।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ডাক্তাররা ছেলিটির এক্স-রে এবং সিটি স্ক্যান করে দেখেন তার চোয়ালের ডানদিকে হাড় লাগোয়া একটি থলের মধ্যে অনেক দাঁত সারি বেঁধে রয়েছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় এই রোগ ‘কমপাউন্ড কম্পোজিট ওডনটোমা’নামে পরিচিত।

মুখের ভেতর অস্বাভাবিক এই ‍দৃশ্য দেখার পর পরই ছেলেটির মুখে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। তাতেই দুপাটি মিলিয়ে ২১টি দাঁত রেখে, বাড়তি ৫২৬টি দাঁত বার করে আনা হয়। আর ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার মুহূর্তেই সেটি আলোচ্য বিষয় ওঠে।

হাসপাতালটির ওরাল অ্যান্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক পি সেন্থিলনাথন সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘অ্যানাস্থেসিয়া দিয়ে চোয়ালের ওই অংশ কেটে দেখি ভেতরে একটি থলে। আনুমানিক ২০০ গ্রাম ওজনের ওই থলে বের করে আনি আমরা। সেটি কাটতেই ভেতর থেকে ৫২৬টি দাঁত বেরিয়ে আসে।

অস্ত্রোপচারে মোট পাঁচ ঘণ্টা সময় লাগে এবং এর তিনদিন পর ছেলেটি সুস্থ হয়ে উঠেব বলে জানিয়েছে তিনি। চিকিৎসকদের মতে, বিশ্বের প্রথম নথিভূক্ত ঘটনা হিসেবে একজন মানুষের মুখ থেকে এতগুলো দাঁত পাওয়া গেল।

এসএ/পিআর