ভারতের উত্তরাঞ্চলে বৃষ্টি-বন্যায় ৫৮ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৩৫ এএম, ২০ আগস্ট ২০১৯

ভারতের উত্তরাঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাত ও বন্যায় এখন পর্যন্ত ৫৮ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদিকে যমুনা নদীর পানি বিপদসীমার ওপরে উঠে যাওয়ায় দিল্লিতে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। দিল্লির বিভিন্ন নিচু এলাকা থেকে ১০ হাজারের বেশি মানুষকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। খবর এনডিটিভি।

গত দু'দিন ধরে ভারতের উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন স্থানে ভারী বৃষ্টিপাতে আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। পাঞ্জাব, হিমাচল প্রদেশ এবং উত্তরাখন্ডে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। এতে বেশ কিছু এলাকায় পর্যটক এবং স্থানীয় বাসিন্দারা আটকা পড়েছেন। এর মধ্যে কিছু স্থান থেকে পর্যটকদের উদ্ধার করা সম্ভব হলেও হিমাচলে এখনও কয়েকশ পর্যটক আটকা পড়েছেন।

গত দু'দিন ধরে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে বেশ কিছু নদীর পানি বেড়ে গেছে। উত্তরাখন্ডে ৩২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া আরও ৮ জন নিখোঁজ রয়েছেন। অপরদিকে হিমাচলে ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলেও বন্যা পরিস্থিতিতে বিপাকে রয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ভারী বৃষ্টিপাত ও বন্যায় কেরালায় এখন পর্যন্ত ১২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেখানে নতুন করে আরও কয়েকজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

কর্নাটাকেও বন্যায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। সেখানে এখন পর্যন্ত ৭৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে আরও ১০ জন। বৃষ্টিপাত ও বন্যার কারণে কাকলা এবং শিমলাসহ বিভিন্ন স্থানে ট্রেন সেবা ব্যহত হচ্ছে।

টিটিএন/এমকেএইচ