গৃহবন্দি অন্ধ্রপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:২২ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের শাসক দল ওয়াইএসআর কংগ্রেস কর্মীদের আক্রমণে শত শত টিডিপি কর্মী গ্রাম ছাড়া হওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল বের করার কথা ছিল বিরোধী দল তেলুগু দেশম পার্টির (টিডিপি)। কিন্তু তার আগেই এই প্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু ও তার ছেলে নারা লোকেশকে গৃহবন্দি করা হয়েছে। বুধবার তাদের গৃহবন্দি করা হয়।

এ ছাড়া টিডিপির একাধিক নেতাকেও গৃহবন্দি করা হয়েছে। এ নিয়ে এখন উত্তপ্ত অন্ধ্রপ্রদেশ। অনেকে বলছেন, বিজেপি’র দেখানো পথেই হাঁটছেন জগনমোহন রেড্ডি।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বুধবারের কর্মসূচি ঘিরে শুরু থেকেই উত্তেজনা ছিল। দলীয় প্রধানের বাড়ির সামনে উপস্থিত হয়েছিলেন হাজার হাজার কর্মী-সমর্থক। ছিল বিশালসংখ্যক পুলিশ। তখন পুলিশের সঙ্গে টিডিপি কর্মীদের হাতিহাতি শুরু হয়। পরিস্থিত চরমে পৌঁছার আগেই আন্দোলকারীদের গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার থেকেই গুন্টুরজুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। টিডিপির ডাকে ১২ ঘণ্টার বনধ চলছে অন্ধ্রে।

রাজ্য প্রশাসনের দাবি, টিডিপির মিছিলের অনুমতি ছিল না। রাজ্যে শান্তি বিঘ্নিত করার চেষ্টা হলে কড়া পদক্ষেপ নেয়া হবে।

রাজ্যের স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী এম সুচরিতা বলেছেন, ‘অন্ধ্রপ্রদেশের আইন-শৃঙ্খলা বিপন্ন করা হলে দোষী যেকোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধেই কঠোর পদক্ষেপ
নেয়া হবে।’

গত ২৩ মে বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর থেকেই অন্ধ্রপ্রদেশের একাধিক জেলায় সংঘর্ষে জড়ায় ওয়াইএসআরসিপি ও টিডিপি কর্মী-সমর্থকরা। বারবার শাসক দলের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ তোলেন টিডিপি প্রধান চন্দ্রবাবু নায়ডু। এসব ঘটনার প্রতিবাদেই বুধবার বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দিয়েছিল টিডিপি, যা বন্ধের জন্য টিডিপি নেতাদের গৃহবন্দি করলেন জগনমোহন রেড্ডি।

জেডএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]