‘প্যারাসাইট’ অস্কার জেতায় ক্ষেপেছেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৫৮ এএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

এবারের অস্কারে রীতিমতো ইতিহাস গড়েছে দক্ষিণ কোরীয় সিনেমা ‘প্যারাসাইট’। তবে এতে মোটেও খুশি নন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমন সিদ্ধান্তের জন্য রীতিমতো অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড কর্তৃপক্ষকে একহাত নিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার কলোরাডোর এক সমাবেশে বক্তব্যকালে ‘প্যারাসাইট’কে অস্কার দেয়ার কড়া সমালোচনা করে ট্রাম্প বলেন, ‘দেখেছেন, এ বছর অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড কতটা বাজে ছিল?’
অস্কার মঞ্চে উপস্থাপকের বলার ভঙ্গিকে ব্যঙ্গ করে তিনি বলেন, ‘এবং বিজয়ী হচ্ছে… দক্ষিণ কোরিয়ার একটি মুভি! এটা কী ছিল?’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এমনিতেই বাণিজ্য নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আমাদের যথেষ্ট ঝামেলা আছে, তারপরও তারা (অস্কার কর্তৃপক্ষ) তাদের বর্ষসেরা সেরা মুভির পুরস্কার দিয়ে দিলো?’

এবারের অস্কারে বং জুন-হো’র ছবিটি সেরা সিনেমা, সেরা পরিচালকসহ চারটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার বাগিয়ে নিয়েছে। কিন্তু এতে মোটেও খুশি হতে পারেননি রিপাবলিকান নেতা ট্রাম্প। বরং এর চেয়ে ৭০-৮০ বছর আগের মার্কিন সিনেমাগুলোকে পুরস্কার দিলে ভালো হতো বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

বেশ কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করা ট্রাম্প বলেন, ‘‘আমরা কি ‘গন উইথ দ্য উইন্ড’ ফেরত পাবো? ‘সানসেট ব্যুলেভার্দ’… কত চমৎকার সিনেমা আছে…’’

প্যারাসাইট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘জানি না এটা ভালো ছিল কি না। আমি মনে করি, এটা সেরা বিদেশি সিনেমা ছিল… না, এটাই সেরা! এমন কি আগে কখনো হয়েছে?’

কোরিয়ান ভাষায় নির্মিত সিনেমাটি বিদেশি দর্শকদের দেখতে হয়েছে সাবটাইটেল দিয়ে। সেদিকে ইঙ্গিত করে ট্রাম্পকে খোঁচা দিয়েছে প্যারাসাইটের যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশক নিওন। প্রতিষ্ঠানটি এক টুইটে বলেছে, ‘বোঝাই যায়, তিনি পড়তে পারেন না।’

এদিকে, শুধু প্যারাসাইটই নয়, এদিন ট্রাম্প মনের ঝাল মিটিয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা ব্র্যাড পিটের ওপরও। এবারের অস্কারে ‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন হলিউড’ মুভির জন্য সেরা সহ-অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন তিনি। তবে পুরস্কার গ্রহণের মঞ্চে ছোট্ট বক্তব্যে ট্রাম্পের অভিশংসনের বিষয়টি টেনে আনেন এ অভিনেতা।
সম্প্রতি অনুষ্ঠিত মার্কিন প্রেসিডেন্টের অভিশংসন শুনানিতে সাক্ষী হিসেবে জন বোল্টনকে উপস্থিত হতে অনুমতি দেয়নি সিনেট। এটি নিয়েই কৌতুক করে অস্কারের মঞ্চে ব্র্যাড পিট বলেন, তারা (অস্কার কর্তৃপক্ষ) বলেছে, এখানে আমার জন্য ৪৫ সেকেন্ড সময় আছে, যেটা জন বোল্টনকে সিনেটের দেয়া সময়ের চেয়ে ৪৫ সেকেন্ড বেশি। মনে হয়, (কোয়েন্টিন) টারান্টিনো এটা নিয়ে একটা মুভি বানাবেন, যার শেষে প্রাপ্তবয়স্করা ঠিক কাজটাই করবেন।
পিটের এ বক্তব্য মোটেও ভালো লাগেনি ট্রাম্পের। তিনি বলেন, ‘আমি কখনোই তার (ব্র্যাড পিট) বড় ভক্ত ছিলাম না। তিনি উঠলেন, বিবৃতিতে স্বল্পজ্ঞানী কথাবার্তা বললেন। স্বল্পজ্ঞানী, তিনি একজন স্বল্পজ্ঞানী মানুষ।’

সূত্র: সিএনএন

কেএএ/এমকেএইচ