দিল্লিতে গোয়েন্দা কর্মকর্তাকে পিটিয়ে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪০ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির উত্তরপূর্বাঞ্চলের সহিংসতায় বিধ্বস্ত চাঁদবাগ এলাকা থেকে দেশটির গোয়েন্দা বাহিনীর এক কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় সময় বুধবার সকালের দিকে চাঁদবাগের একটি ড্রেন থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, নয়াদিল্লির উত্তরপূর্বাঞ্চলে বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী ও সমর্থকদের মঙ্গলবারের তীব্র সংঘাত-সংঘর্ষের পর এখনও থমথমে অবস্থায় রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বুধবার সকালের দিকে দিল্লির চাঁদবাগ এলাকায় সংঘর্ষস্থানের পাশের একটি ড্রেন থেকে গোয়েন্দা কর্মকর্তা
অঙ্কিত শর্মার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা বলেছেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে বাসায় ফেরার সময় চাঁদবাগে একদল উত্তেজিত জনতা অঙ্কিত শর্মার ওপর হামলা চালায়। চাঁদবাগ সেতুর ওপর তাকে পিটিয়ে হত্যার পর পাশের একটি ড্রেনে মরদেহ ফেলে দেয়া হয়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকেই পরিবারের সদস্যরা তাকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না। বুধবার সকালের দিকে মরদেহের খোঁজ পাওয়ার পর অঙ্কিতের বাবা রবিন্দর শর্মা বলেন, আম আদমি পার্টির সমর্থকরা তার ছেলেকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

পুলিশকে রবিন্দর শর্মা বলেন, মারধরের পর অঙ্কিতকে গুলিও করা হয়েছে। এদিকে, মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে দিল্লি পুলিশ।

গত বছরের ১১ ডিসেম্বর ভারতের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হয়। পরদিন রাষ্ট্রপতি এই বিলে স্বাক্ষর করলে সেটি আইনে পরিণত হয়। বিলটি আইনে পরিণত হওয়ার পর দেশজুড়ে বিক্ষোভ করছেন দেশটির হাজার হাজার মানুষ। তবে গত তিনদিন ধরে দিল্লিতে এই বিক্ষোভ সহিংস আকার ধারণ করেছে। সেখানে মুসলিমদের বেছে বেছে মারধর, বাড়িতে আগুন, দোকানপাটে লুটপাট করছে বিজেপির সমর্থকরা। এতে এখন পর্যন্ত অন্তত ২০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

এসআইএস/এমএস

টাইমলাইন