অগ্নিগর্ভ দিল্লিতে সেনা মোতায়েন চান কেজরিওয়াল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৩ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ভারতের রাজধানী দিল্লি রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। তিনদিন ধরে সেখানে বিক্ষোভ-সংঘাত চলছেই। এখন পর্যন্ত ২০ জন সংঘাতে প্রাণ হারিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে পুলিশ। দিল্লিতে তাই অবিলম্বে সেনা মোতায়েনের আহ্বান জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবারও দিল্লিতে সেনা নামানোর পক্ষে মত দিয়েছিলেন কেজরিওয়াল। তবে সে সময় কেন্দ্রের তরফ থেকে আরও পুলিশ বাহিনী নামানো হবে বলে আশ্বাস দেয়া হয়। গতকাল ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলোতে সবমিলিয়ে ৪৫ কোম্পানি আধাসেনা নামানো হয়েছে।

বুধবার সকালে দিল্লিতে মৃতের সংখ্যা বাড়তে থাকায় রাজধানীর পরিস্থিতি নিয়ে টুইটারে উদ্বেগ প্রকাশ করেন কেজরিওয়াল। তিনি এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, রাতভর অনেক মানুষের সঙ্গে কথা হয়েছে। পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক।

delhi.jpg

তিনি আরও লিখেছেন, সব ধরনের চেষ্টা সত্ত্বেও এখনও পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি পুলিশ। মানুষের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ফেরানো যায়নি। এবার সেনা নামানো উচিত। ক্ষতিগ্রস্ত সব জায়গায় অবিলম্বে কারফিউ জারি করা উচিত। এ ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে চিঠি দেয়া হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরোধী ও সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের জের ধরে রোববার থেকে উত্তর-পূর্ব দিল্লির বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। তারপর থেকে গত তিনদিনে বিভিন্ন এলাকায় সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে। এলোপাথাড়ি ইট-পাথর নিক্ষেপের পাশাপাশি চলেছে গোলাগুলিও।

দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ে ইতোমধ্যেই অমিত শাহর সঙ্গে একদফা বৈঠক করেছেন কেজরিওয়াল। তবে বিভিন্ন মহলের অভিযোগ, সহিংসতা রুখতে কেজরিওয়ালের প্রশাসনের তরফ থেকে এখন পর্যন্ত কোনও পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। এমনকি শান্তির আহ্বান জানানো ছাড়া সহিংসতা নিয়ে কোনও মন্তব্যও করতে দেখা যায়নি তাকে।

টিটিএন/এমএস

টাইমলাইন