হারিয়ে যাওয়া ফোনে বানরের ‘সেলফি’!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫২ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

হারিয়ে যাওয়া ফোন খুঁজে পাওয়ার ঘটনা আমরা বহুবার শুনেছি। আধুনিক প্রযুক্তির যুগে ফোন ট্র্যাক করার পদ্ধতি রয়েছে যথেষ্ট। তবে সেটি চুরি হওয়ার পর চোরের ছবিসহ ফিরে আসার ঘটনা কিন্তু সচরাচর দেখা যায় না। এদিক থেকে অনেকটাই সৌভাব্যবান মালয়েশিয়ার অধিবাসী জ্যাক্রিডজ রোডজি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, গত শনিবার সকাল ১১টার দিকে বাড়িতে ঘুম থেকে উঠে নিজের স্মার্টফোন খুঁজে পাচ্ছিলেন না রোডজি। কোনও ধরনের চুরি-ডাকাতির চিহ্ন ছিল না আশপাশে। ফোনটা যেন বেমালুম গায়েবই হয়ে গিয়েছিল। এভাবে টানা একদিনের বেশি কোনও হদিশ ছিল না ওই ফোনের।

রোববার বিকেলে রোডজির বাবা বাড়ির বাইরে একটি বানর দেখতে পান। তখন কিছু একটা মনে করে কল দেয়া হয় হারিয়ে যাওয়া ফোনে। খেয়াল করতেই দেখা যায়, বাড়ির পেছনে জঙ্গলের ভেতর থেকে রিংটোনের আওয়াজ আসছে। খুঁজতে খুঁজতে অবশেষে একটি পাম গাছের নিচে কাদা মাখানো অবস্থায় পাওয়া যায় সেই ফোন।

jagonews24

ফোন পেয়ে রোডজির চাচা সেসময় মজা করে বলছিলেন, ‘দেখো, এর ভেতরে চোরের ছবি থাকতে পারে!’ কিন্তু সেটি পরিষ্কার করে গ্যালারি খুলতেই সত্যি সত্যিই সবার চোখ ছানাবড়া! ফোনের ক্যামেরায় এমন কিছু ছবি আর ভিডিও আছে যেগুলো সম্পর্কে তারা কেউই জানতেন না। ছবিগুলো ছিল একটি বানরের।

বিবিসির হাতে যাওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে, ফোন হারিয়ে যাওয়ার দিন, অর্থাৎ শনিবার দুপুর ২টা ১ মিনিটে ফোনটি খাওয়ার চেষ্টা করছে একটি বানর। ফোনের দিকে তাকিয়ে থাকা বানরটির পেছনে ছিল সবুজ গাছপালা ও সেখানে পাখির কিচিরমিচির শোনা যাচ্ছিল।

রোডজি বানরের ছবিগুলো টুইটারে শেয়ার করার পর দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায় সেগুলো। তবে তার ফোন ঘরের ভেতর থেকে ওই বানরটিই নিয়ে গিয়েছিল কি না বা ক্যামেরা কীভাবে চালু হলো তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

কেএএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]