কুয়েতের নতুন আমিরের শপথগ্রহণ আজ

সাদেক রিপন
সাদেক রিপন সাদেক রিপন , কুয়েত প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৪:৫৩ এএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

কুয়েতের নতুন আমির হিসেবে ক্রাউন প্রিন্স শেখ নওয়াফ আল আহমদ শপথগ্রহণ করবেন আজ। ৩০ সেপ্টেম্বর দেশটির উপপ্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আনাস আল সালেহ সংসদ অধিবেশন শেষে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

কুয়েতের আমিরের মৃত্যুতে দেশটির সরকার গতকাল থেকে ৪০ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করে। এছাড়া ৩ দিনের জন্য সকল অফিস আদালত কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। দেশটির স্থানীয় পত্রিকা আরব টাইমস এ নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

উল্লেখ্য, কুয়েতের আমির সাবাহ আল-আহমদ আল-জাবের আল সাবাহ মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৯১ বছর।

২০০৬ সাল থেকে আরব উপসাগরের তেলসমৃদ্ধ দেশ কুয়েতের আমিরের দায়িত্বে ছিলেন শেখ সাবাহ। দীর্ঘদিন ধরেই নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি।

২০০২ সালে অ্যাপেন্ডিক্স অপসারণ করা হয় কুয়েতি আমিরের। এর দুই বছর পর হৃদপিণ্ডে একটি পেসমেকার প্রতিস্থাপন করা হয়। ২০০৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে মূত্রনালিতে অস্ত্রোপচার করা হয় শেখ সাবাহর।

২০১৯ সালেও একবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। অসুস্থতার কারণে তখন যুক্তরাষ্ট্র সফর সংক্ষিপ্ত করেন আল-সাবাহ। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেখা করার সূচি পর্যন্ত বাদ দেন তিনি।

১৯২৯ সালে জন্ম নেয়া শেখ সাবাহকে আধুনিক কুয়েতের স্থপতি হিসেবে ভাবা হয়। ১৯৬৩ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত প্রায় ৪০ বছর পর্যন্ত দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এরপর কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী হন সর্বজনশ্রদ্ধেয় এ নেতা।

২০০৬ সালে শেখ জাবের আল সাবাহর মৃত্যুর পর আরব উপসাগরীয় তেলসমৃদ্ধ দেশটির আমিরের দায়িত্বে পান শেখ সাবাহ। আরব উপসাগরে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন চরমে পৌঁছালে উভয়পক্ষকে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন কুয়েতের আমির।

এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]