আব্বাসকে বাইডেনের প্রথম ফোন, জোরালো সমর্থন ইসরায়েলকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৪৭ এএম, ১৬ মে ২০২১ | আপডেট: ১১:২৯ এএম, ১৬ মে ২০২১

ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস ও ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এ সময় ইসরায়েলের পক্ষে জোরালো সমর্থন ব্যক্ত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। একই সঙ্গে তিনি গাজায় নির্বিচারে বোমা হামলা বন্ধ করতে বলেন।

রোববার (১৬ মে) তিনি তাদের সঙ্গে পৃথক ফোনালাপ করেন বলে টুইটারে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস।

jagonews24

হোয়াইট হাউস বলে, ‘আজ ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি ইসরায়েলের অধিকারের পক্ষে জোরালো সমর্থন জানিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট বলেছেন- হামাস ও অন্যান্য সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর রকেট হামলা ঠেকাতে নিজেকে রক্ষা করার অধিকার রয়েছে ইসরায়েলের।’

অন্যদিকে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে গাজা থেকে রকেট হামলা বন্ধ করতে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে বলেন বাইডেন। একই সঙ্গে তিনি ফিলিস্তিনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অংশীদারত্ব জোরদারে নিজের প্রতিশ্রুতিও ব্যক্ত করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর এই প্রথম আব্বাসের সঙ্গে কথা হয়েছে বাইডেনের।

jagonews24

এদিকে গাজা উপত্যকায় হামলা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন নেতানিয়াহু। তিনি বলেন, ‘যতদিন প্রয়োজন ততদিন গাজায় হামলা চলবে এবং যতটা সম্ভব বেসামরিক ব্যক্তিদের হতাহত এড়ানো হবে।’

সাতদিন ধরে গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি আগ্রাসন চলছেই। রোববার (১৬ মে) সকালের দিকেও বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে নতুন করে আরও চার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। হামলায় এখন পর্যন্ত ১৪৯ জন ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন।

এছাড়া গাজায় ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্রের হামলায় কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার কার্যালয় ধ্বংস হয়ে গেছে। ভবনটিতে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসসহ (এপি) আরও বেশ কিছু আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের কার্যালয় ছিল।

গাজা থেকে আল জাজিরার প্রতিবেদক শাফওয়াত আল-কাহলাউত বলেন, ‘বোমা হামলার ঘণ্টাখানেক আগে ইসরায়েলি বাহিনী থেকে হামলার বিষয়ে জানানো হয়। তখন তিনি ও তার সহকর্মীরা যতটা সম্ভব অফিসের জিনিসপত্র, বিশেষ করে ক্যামেরা নিয়ে ভবন থেকে বের হয়ে আসেন।’

জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]