এবার চীনে তীব্র তেল সংকট, পাম্পে গড়ির দীর্ঘ লাইন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৪৯ পিএম, ২৮ অক্টোবর ২০২১

চীনের বিভিন্ন এলাকায় দেখা দিয়েছে তীব্র তেল সংকট। তেল বিক্রির ক্ষেত্রে অনুসরণ করা হচ্ছে রেশনিং পদ্ধতি অর্থাৎ কে কতটুকু তেল এক সঙ্গে কিনতে পারবে তা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি ও সরবরাহ ব্যবস্থা কমে যাওয়ার পর দেশটির পেট্রোল স্টেশনগুলো এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ওয়েবোর এক পোস্টের তথ্যানুযায়ী, কিছু ট্রাক ড্রাইভার জ্বালানি তেলের জন্য সারাদিন লাইনে অপেক্ষা করছে। এরই মধ্যে কয়লা ও গ্যাস স্বল্পতার কারণে বর্তমানে চীনে তীব্র বিদ্যুৎ সংকট চলছে। ফলে দেশটিতে বন্ধ রয়েছে বহু কারখানা। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অনেক আবাসিক এলাকা। বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বর্তমানে কয়লার অভাবে বৈশ্বিকভাবেই বিদ্যুৎ বিভ্রাট দেখা দিয়েছে।

হেবেই প্রদেশের শিজিয়াজুয়াং শহরের একজন ট্রাক ব্যবসায়ী চীনা বিজনেস নিউজ সার্ভিস কাইক্সিনকে বলেন, ট্রাকগুলো একসঙ্গে ১০০ লিটার তেল নিতে পারছে। যা সক্ষমতার মাত্র ১০ শতাংশ। তবে দেশটির কোথাও কোথাও এ পরিমাণ আরও কমিয়ে মাত্র ২৫ লিটার কেনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের চীনের পরিচালক ম্যাটি বেকিঙ্ক বলেন, বর্তমান ডিজেলের ঘাটতি দীর্ঘ দূরত্বের পরিবহন ব্যবসাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। যার প্রভাব চীনের বইরেও পরতে পারে।

করোনা মহামারির কারণে বৈশ্বিক সরবরাহ ব্যবস্থায় বড় সংকট তৈরি হয়। এখন সব দেশই মহামারি প্রায় কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয়েছে। অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করতে চাহিদা বাড়ছে তেলের।

এমএসএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]