৪ বছর পর মুক্তি পেলেন হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থি অধিকারকর্মী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:০৯ এএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২২

চীনের আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থি অধিকারকর্মী এডওয়ার্ড লেউং চার বছর কারাভোগের পর অবশেষে মুক্তি পেয়েছেন। লেউং নিজেকে হংকংয়ের বলে দাবি করেন। হংকংয়ের গণতন্ত্রের দাবিতে চলা আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন তিনি।

২০১৬ সালের গণতন্ত্রের দাবিতে বিক্ষোভের সময় একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করা এবং সহিংসতা ও শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে আটকের পর ২০১৮ সালে তাকে ছয় বছরের সাজা দেওয়া হয়।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) ভালো ব্যবহারের জন্য চার বছরের সাজা খাটার পর মুক্তি পেলেন এডওয়ার্ড। ভোর ৩টার দিকে লানতাউ দ্বীপের শেক পিক কারাগার থেকে বের হন তিনি।

মুক্তির পর ৩০ বছর বয়সী লেউং এক প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, গত চার বছর ধরে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন ছিলাম। আমি এখন আমার পরিবারের সঙ্গে স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে চাই। বুধবার এক ফেসবুক পোস্টে তিনি সবাইকে ধন্যবাদও জানান।

লেউং আরও বলেন, তিনি আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সক্রিয় থাকছেন না। সাক্ষাৎকার দেওয়া থেকেও বিরত থাকতে চান তিনি। এরপর থেকে তার ফেসবুক পেজটি মুছে ফেলা হয়েছে।

হংকং চীনের আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল। এই অঞ্চলটি এক সময় যুক্তরাজ্যের একটি উপনিবেশ ছিল। ১৯৯৭ সালে চুক্তির মাধ্যমে হংকংকে চীনের হাতে তুলে দেওয়া হয়। সেই চুক্তিতে হংকংয়ের স্বায়ত্তশাসন নিশ্চিত করার কথা বলা হয়। হংকং এক দেশ, দুই নীতির মাধ্যমে পরিচালিত হয়ে আসছে। চুক্তি অনুসারে হংকংয়ে আলাদা বিচার বিভাগ, আইনসভা ও নিরাপত্তা বাহিনী রয়েছে।

২০২০ সালে চীন বিতর্কিত জাতীয় নিরাপত্তা আইন পাস করার পর থেকে একশো জনের বেশি মানুষকে আটক করা হয়। এর আগেও এই আইনের আওতায় সাজা দেওয়া হয়েছে অনেককে। এই আইনের ফলে চীনের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা ও নগরীর স্বাধীনতার জন্য হুমকি বলে অভিযোগ আছে আগে থেকেই।

সূত্র: ব্লুমবার্গ

এসএনআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]