ফ্রি ফায়ার গেম খেলা নিয়ে সংঘর্ষ, নারীসহ আহত ৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২০ এএম, ২২ জানুয়ারি ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

মোবাইলে গেম (ফ্রি ফায়ার গেম) খেলাকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় এক নারীসহ ছয়জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে কয়েকজনের শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের মদনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার জেরে এলাকায় চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ভরতপুরের আলুগ্রাম পঞ্চায়েতের মদনপুর গ্রামে একটি বাড়ির ছাদে বেশ কয়েকজন যুবক জড়ো হয়ে ফ্রি ফায়ার গেম খেলেন। খেলা শুরু হতেই চিৎকার করতে থাকেন তারা।

প্রতিদিন এই চিৎকারে বিরক্ত প্রতিবেশীরা শুক্রবার যুবকদের শান্ত হয়ে গেম খেলতে বলেন। কিন্তু যুবকরা সেকথায় কর্ণপাত করেননি। এর পর স্থানীয় এক যুবক প্রথমে গেম খেলার জন্য জড়ো হওয়া যুবকদের ওপর হামলা চালান। পালটা হামলায় এক শিশু ও এক নারীসহ ছয়জন আহত হন। তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্থার অবনতি হওয়ায় কান্দি মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

তবে স্থানীয় আরেকটি সূত্র জানায়, গ্রামের মীর পিয়ার আলির পরিবার ও চাঁদ বিবির পরিবারের মধ্যে এই ঘটনা ঘটেছে। দুই পরিবারের দুই ছেলে ছাদে দাঁড়িয়ে মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলছিলেন। একজন হারছিলেন আর এক জন জিতছিলেন। তা নিয়েই ঝগড়ার সূত্রপাত। এর পরই দুই পরিবার নিজেদের মধ্যে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ে। ওই দুই পরিবারের মধ্যে কখনোই ভালো সম্পর্ক ছিল না বলেও জানান স্থানীয়রা।

মীর পিয়ারের অভিযোগ, চাঁদ বিবি ও তার ছেলে রাহুল তাদের বাড়িতে হামলা চালায় প্রথমে। অন্যদিকে, চাঁদ বিবির অভিযোগ, মীর পিয়ারের পরিবারই হামলা চালিয়ে তাদের বাড়ি ভাঙচুর করে। পঞ্চাশ হাজার টাকা লুঠ করে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সূত্র: আনন্দবাজার, হিন্দুস্তান টাইমস।

কেএসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]