কলেজছাত্র অহিদ হত্যা মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৪৭ এএম, ১৯ জুন ২০১৯

মাদারীপুরের সরকারি নাজিম উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এমএ শেষ বর্ষের ছাত্র অহিদুজ্জামানকে শ্বাসরোধে হত্যার মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। বুধবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক মনির কামাল এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- লেনিন ব্যাপারী, শাহাবুদ্দিন দর্জি, রেজাউল ব্যাপারী ও এমএম ফয়সাল আহমেদ। এদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ২ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। অপরদিকে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মহিউদ্দিন দর্জিকে খালাস দেন আদালত।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, অহিদুজ্জামানের স্ত্রীকে পছন্দ করতেন রেজাউল ব্যাপারী। পছন্দের মানুষকে না পেয়ে অহিদুজ্জামানকে হত্যার পরিকল্পনা করেন রেজাউল।

২০১৩ সালের ৬ মার্চ রেজাউল তার লোকজন নিয়ে কৌশলে অহিদুজ্জামানকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আসে। এরপর মানিকগঞ্জের সিংগাইরে নিয়ে ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন। এ ঘটনায় সিংগাইর থানার এসআই আ. ছালাম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেন।

২০১৪ সালের ২২ নভেম্বর ডিবির পুলিশ পরিদর্শক মদন মোহন বনিক ৬ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন। ২০১৬ সালের ২৭ নভেম্বর চার্জ গঠন করেন আদালত। মামলার ৪২ সাক্ষীর মধ্যে ২২ জন বিভিন্ন সময় আদালতে সাক্ষ্য দেন।

মামলার আসামিদের মধ্যে রেজাউল ও মহিউদ্দিন পলাতক রয়েছে। মামলার বিচারকাজ চলাকালে সেলিম মারা যান। আসামি লেনিন ব্যাপারী, শাহাবুদ্দিন দর্জি ও সেলিম হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

জেএ/এমএসএইচ/পিআর