ঈদের পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে কেমন চুড়ি পরবেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৩২ পিএম, ০৫ মে ২০২১

ঈদের পোশাকের সঙ্গে মানানসই চুড়ি না পরলে সাজ পরিপূর্ণতা পায় না! সব নারীরাই চুড়ি পরতে পছন্দ করেন। কেউবা একটি বালা পরেই খুশি আবার অনেকেই দুই হাত ভরে রেশমি চুড়ি না ভরলে আনন্দ পান না। চুড়ির প্রতি সব নারীরই দুর্বলতা আছে কমবেশি।

বিশেষ করে শাড়ির সঙ্গে চুড়ি পরার চল সেই প্রাচীনকাল থেকেই বিদ্যমান। সোনা, রুপা, ইমটেশন, রেশমি, কাঁচেরসহ ধাতব বিভিন্ন চুড়ি এখন বাজারে সহজলভ্য। কম দাম ও বাহারি ডিজাইনের হওয়ায় যেকোনো সাজসজ্জাতেই নারীরা কাচের চুড়ি পরতে বেশি পছন্দ করে।

বিভিন্ন উৎসব উদযাপনে পোশাকের সঙ্গে মানানসই চুড়ি ছাড়া নারীর সাজ পরিপূর্ণ হয় না। এবারের ঈদেই বা এর ব্যাতিক্রম হবে কেন? ফ্যাশন ডিজাইনারদের মতে, যেকোনো সময়ই চুড়ি পরতে পারেন। এর কোনো নিয়ম বা উপলক্ষ্য নেই।

churi

পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে একই রঙের কাচের চুড়ি যেমন সুন্দর দেখায়; তেমনি কন্ট্রাস্ট বা মাল্টি কালারের চুড়ি পরলেও সাজ বদলে যায়। ঈদের নতুন পোশাকের সঙ্গে মানানসই চুড়ি বেছে নেওয়ার উপায় জেনে নিন-

>> আপনার ঈদের পোশাক যদি দেশীয় ঘরানার হয়; তাহলে এক হাত ভরে চুড়ি পরুন। অন্য হাতে একটি মোটা বালা পরতে পারেন। অথবা চাইলে দুই হাতেই চুড়ি পরতে পারেন। তবে হাত ভরে নয়, কিছুটা ফাঁকা রেখে পরলে ভালো লাগবে।

>> দেশীয় পোশাকের সঙ্গে কাঠের বা অক্সিডাইজড ধাতুর মোটা বালাও পরতে পারেন। আবার মোটা ধরনের কয়েকটি কাচের চুড়ি এক হাতে ব্রেসলেটের মতো করে পরলেও ভালো লাগবে।

churi

>> এক রঙা পোশাকের সঙ্গে একটু গর্জিয়াস চুড়ি পরতে পারেন। এক্ষেত্রে বেছে নিতে পারেন চুমকি বসানো বা বাহারি নকশার চুড়ি। এগুলোর মধ্যে পাথর বসানো মোটা চুড়িও পাওয়া যায়। চাইলে এক হাতে কয়েকটি পরতে পারেন।

>> বর্তমানে বিভিন্ন ধরনের চুড়ি পাওয়া যায় যেমন- রেশমি, চুমকি, জারকা, মোহনা সাইকেল, খিচুড়ি ইত্যাদি। তবে রেশমি চুড়ির চল সবসময় একই দৃষ্টিভঙ্গি বহন করে আসছে। তাই নতুন পোশাকের সঙ্গে এক সেট রেশমি চুড়ি পরতেই পারেন! বিশেষ করে সুতির শাড়ি বা কামিজের সঙ্গে বেশ মানিয়ে যায় রেশমি চুড়ি।

>> তাঁত, টাই-ডাই বা বাটিকের পোশাকের সঙ্গে কাঠ কিংবা কাপড়ের বাহারি ডিজাইনের চুড়ি বেছে নিতে পারেন। এ ছাড়াও কাপড়, লেইস বা কাঠের চুড়িগুলো বেশ মানিয়ে যায় এমন পোশাকের সঙ্গে।

churi

>> সিল্কের শাড়ির সঙ্গে অক্সিডাইজের চুড়ি পরতে পারেন। এগুলো স্বভাবতই একটু ভারি হয়। তাই এক হাতে দুটি চুড়ি পরুন। অন্য হাতে ঘড়ি পরলেই আপনি অনন্য!

>> সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে রং মিলিয়ে কাচের কিংবা সুতার চুড়ি পরতে পারেন। আবার ওড়না বা সালোয়ারের সঙ্গে মিলিয়েও চুড়ি পরতে পারেন। এতে আপনার সাজ সম্পূর্ণ হবে।

>> ওয়েস্টার্ন পোশাকের সঙ্গেও কি চুড়ি পরা যায়? অবশ্যই পরতে পারবেন। তবে আপনার সিলেকশন যেন সঠিক হয়। এ জন্য বেছে নিন স্টাইলিশ সিলভার কালারের চুড়ি। সিলভার কালারের বিভিন্ন নকশার চুড়ি রয়েছে। পছন্দমতো বেছে নিতে পারেন।

চুড়ির দাম কত?

স্থানভেদে চুড়ির দাম একেকরকম হতে পারে। এক ডজন কাচের চুড়ি ৩০-৫০ টাকা ও রেশমি চুড়ি ৪০-৫০ টাকার মধ্যে পাবেন।

churi

লেইস ও কাপড়ে মোড়া চুড়ি পাবেন ৫০-৭০ টাকা, মাটির চুড়ি ৫০-৭০, ধাতব চুড়ি ৫০-৫০০, স্টোন ও কারুকার্য করা চুড়ি পেয়ে যাবেন ৩৫০-৯০০ টাকার মধ্যে।

চুড়ির মেটেরিয়ালের উপর নির্ভর করে দাম বাড়তে বা কমতে পারে। এক হাজার টাকার উপরেও নজরকাড়া চুড়ি পেয়ে যাবেন বিভিন্ন দোকানে।

churi

কোথায় পাবেন চুড়ি?

দেশের সবচেয়ে বড় চুড়ির পাইকারি বাজার হলো পুরান ঢাকার চকবাজারে। সারা দেশের প্রায় ৮০ ভাগ চুড়ি এখান থেকেই সরবরাহ করা হয়। ১৫০-২০০ ডিজাইনের চুড়ির দেখা পাবেন সেখানে গেলে।

এ ছাড়াও নিউমার্কেটসহ বিভিন্ন শপিংমলের প্রসাধনীর দোকানে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে, পিরান, আজিজ সুপার মার্কেটসহ যেকোনো ফ্যাশন হাউজেই পেয়ে যাবেন আপনার পছন্দের চুড়ি।

জেএমএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]