জেনিফার উইনগেটের রূপের গোপন রহস্য

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৩ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০২২

তার রূপে মুগ্ধ সবাই! শুধু সৌন্দর্য দিয়েই নয় বরং অভিনয়েও সফল তিনি। পুরো বিশ্বেই রয়েছে তার ভক্তকূল। জেনিফার উইনগেট এজন্য সফল ভারতীয় টিভি অভিনেত্রী।

শৈশবেই তিনি অভিনয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন ‘শাকা লাকা বুম বুম’ টিভি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে।

এরপর থেকে একের পর এক কাজ করে সফল অভিনেত্রীর তকমা পেয়েছেন। বেশ কয়েকবার সেরা ভারতীয় টিভি অভিনেত্রীর সম্মাননাও গ্রহণ করেছেন তিনি।

বয়স ৩৬ বছর হলেও জেনিফার যেন আজও তরুণী। তার সৌন্দর্য নিয়ে সবাই কৌতূহল। জেনিফার কী খান, কীভাবে ফিট থাকেন কিংবা তার সৌন্দর্য রহস্যই বা কী?

আসলে জেনিফার ন্যাচারাল বিউটি। তিনি কম মেকআপ ব্যবহারেই অভ্যস্ত। তবে নিজের প্রতি বেশ য্ত্নশীল এই অভিনেত্রী। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক জেনিফার উইনগেটের রূপের রহস্য-

এ বিষয়ে জেনিফার বলেন, ‘প্রথম ও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো খুশি থাকা। যখন আপনি খুশি থাকবেন তখন তার ছাপ ফুটে উঠবে আপনার মুখে।’

দিনে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করেন জেনিফার। তার মতে, ‘শরীরকে হাইড্রেট বা আর্দ্র রাখা খুবই জরুরি। পর্যাপ্ত পানি পান করলেই কেবল আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরে পাবেন ভেতর থেকে।’

ত্বকের পিএইচ এর ভারসাম্য ধরে রাখতে জেনিফার প্রচুর পরিমাণে মৌসুমী রসালো ফল খান। সামান্য ক্ষুদা লাগলেই ফল বেছে নেন তিনি। তার এই অভ্যাসের কারণেই হয়তো ত্বক এতো জেল্লাদার।

ত্বক ভালো রাখতে নিয়মিত এক্সফোলিয়েট করেন জেনিফার। এতে ত্বকের মরা কোষ দূর হয় ও ত্বক মুহূর্তেই ফিরে পায় উজ্জ্বলতা। এজন্য আপনিও নিয়মিত ত্বক স্ক্রাব করুন।

জেনিফার তার ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে ব্যবহার করেন বিশেষ এক ফেসমাস্ক। আর তা হলো গ্রিন ক্লে মাস্ক। এটি ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। জেনিফার এজন্য ব্যবহার করেন ইউক্লেপটাস সমৃদ্ধ গ্রিন ক্লে মাস্ক।

ত্বকের উজ্জ্বলতা ত্বখনই বাড়ে যখন শরীরের ভেতরের বর্জ্য পদার্থ দূর হয়। এজন্য জেনিফার নিয়মিত শরীরচর্চা করেন। কারণ এর ফলে শরীরের টক্সিন সহজেই দূর হয়।

পাইলেটস, অ্যারোবিক্স, যোগ ব্যায়াম নিয়মিত করেন জেনিফার। যার মাধ্যমে আকর্ষণীয় ফিগার ধরে রেখেছেন এই অভিনেত্রী।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

জেএমএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]