হাত-পা অবশ ও ঝি ঝি ধরার সমস্যা যে ভিটামিন ঘাটতির লক্ষণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০২ এএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

শরীরে যে কোনো পুষ্টি ঘাটতি হলেই তার মারাত্মক প্রভাব পড়ে স্বাস্থ্যে। তবে অনেকেই শারীরিক বিভিন্ন সমস্যায় ভুগলেও টের পান না যে তিনি ভিটামিনের ঘাটতিতে ভুগছেন।

বিশেষ করে ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি স্বাস্থ্যে মারাত্মক প্রভাব ফেলে। এর ফলে শরীরে একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। যার মধ্যে অন্যতম হলো মুখে ঘা, দুর্বলতা, স্নায়ু ও মস্তিষ্কের সমস্যাসহ প্রায়ই হাত-পা অবশ হওয়া বা ঝি ঝি ধরা অন্যতম।

ভিটামিন বি ১২ হলো একটি পুষ্টি, যা শরীরের সুস্থ ক্রিয়াকলাপের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। লোহিত রক্তকণিকা ও ডিএনএ গঠনে সাহায্য করার পাশাপাশি, এটি মস্তিষ্ক ও স্নায়ু কোষের বিকাশেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

তবে খাদ্যিতালিকায় ভিটামিন বি ১২ সমৃদ্ধ খাবার না রাখলে কিংবা সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ না করলে শরীরে দেখা দেয় গুরুত্বপূর্ণ এই ভিটামিনের ঘাটতি। যা শারীরিক নানা সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

চরম ক্লান্তি, মেজাজ পরিবর্তন, ত্বকের পরিবর্তন, পেটের সমস্যা, স্মৃতিশক্তির কমে যাওয়া ইত্যাদি সহ আরও গুরুতর অসুস্থতার লক্ষণ হতে পারে ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি। শরীরে ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি পূরণে অবশ্যই খাদ্যতালিকায় পশুভিত্তিক বা সম্পূরক খাবার খেতে হবে।

ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি গুরুতর যেসব সমস্যার কারণ-

স্নায়বিক সমস্যা

দীর্ঘদিন ধরে ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি শরীরে মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। এটি স্নায়বিক সমস্যা সৃষ্টির অন্যতম কারণ হতে পারে। এর অর্থ হলো শরীরে ভিটামিন বি ১২ এর মাত্রা কমে যাওয়া মস্তিষ্ক ও স্নায়ুর কার্যকারিতায় গুরুতর প্রভাব ফেলে।

হাত-পায়ে অবশ ও ঝি ঝি ধরার সমস্যা

ওরেগন স্টেট ইউনিভার্সিটির মতে, ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতির একটি স্নায়বিক উপসর্গের মধ্যে আছে হাত-পায়ের অসাড়তা ও ঝি ঝি ভাব।

স্বাস্থ্য সংস্থা বিএমজে’র মতে, যদিও নিউরোলজিক জটিলতার অগ্রগতি সাধারণত ধীরে ধীরে হয়, তবে ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি হরে তা চিকিৎসার পরও উপসর্গগুলো দীর্ঘ সময়ের জন্য শরীরে উপস্থিত থাকে। অন্যান্য স্নায়বিক লক্ষণগুলোর মধ্যে আছে হাঁটার অসুবিধা, স্মৃতিশক্তি হ্রাস, বিভ্রান্তি ও ডিমেনশিয়া।

যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসেস (এনএইচএস) ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতির সঙ্গে যুক্ত কিছু লক্ষণ তালিকাভুক্ত করেছে, সেগুলো হলো-

>> ত্বকে ফ্যাকাশে বা হলুদ আভা
>> কালশিটে বা লালচে জিহ্বা
>> মুখে ঘা
>> চলাফেরায় পরিবর্তন
>> ঝাপসা বা বিঘ্নিত দৃষ্টি
>> বিরক্তি ও হতাশা

কীভাবে পরীক্ষা করবেন?

ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি নির্ণয় করার সর্বোত্তম উপায় হলো রক্ত পরীক্ষা করা। উপসর্গগুলো আরও খারাপ হওয়ার জন্য অপেক্ষা না করে বরং লক্ষন দেখে প্রথমদিকেই চিকিৎসা নিন।

বিশেষ বয়স্ক, শিশু, নিরামিষাশী, কঠোর নিরামিষভোজী ও যাদের ডায়াবেটিস আছে তাদের মধ্যে ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি হওয়ার ঝুঁকি বেশি। তাই এদের উচিত নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো।

কীভাবে ভিটামিন বি ১২ এর ঘাটতি পূরণ করবেন?

ভিটামিন বি ১২ প্রাকৃতিকভাবে শরীরে তৈরি হয় না। খাবার ও সাপ্লিমেন্ট গ্রহণের মাধ্যমে এই ভিটামিনের ঘাটতি পূরণ করা যায়। এজন্য নিয়মিত পাতে রাখুন দুধ, ডিম, টকদই, চর্বিযুক্ত মাছ, লাল মাংস ইত্যাদি।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

জেএমএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।