প্রতিষ্ঠানের নামফলক বাংলায় না লেখায় ডিএনসিসির অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৪৮ পিএম, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) এলাকার যেসব প্রতিষ্ঠানের (দূতাবাস, বিদেশি সংস্থা ও তৎসংশ্লিষ্ট ক্ষেত্র ব্যতীত) নামফলক, সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, ব্যানার ইত্যাদি এখনও বাংলায় লেখা হয়নি সেগুলোর বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে ডিএনসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার দুপুরে গুলশান ২ নম্বর থেকে এ অভিযান শুরু হয়েছে। অভিযান পরিচালনা করছেন ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার।

এর আগে গত ২৮ জানুয়ারি ডিএনসিসির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে বলা হয়েছিল, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের এখতিয়ারাধীন এলাকার যেসব প্রতিষ্ঠানের (দূতাবাস, বিদেশি সংস্থা ও তৎসংশ্লিষ্ট ক্ষেত্র ব্যতীত) নামফলক, সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, ব্যানার ইত্যাদি বাংলায় লেখা হয়নি তা অবিলম্বে স্ব-উদ্যোগে অপসারণ করে আগামী ৭ দিনের মধ্যে বাংলায় লিখে প্রতিস্থাপন করতে হবে। সে লক্ষ্যে জাতীয় দৈনিকে গণবিজ্ঞপ্তি এবং ডিএনসিসির ফেইসবুক পেইজে বিষয়টি জানানো হয়।

বুধবারের অভিযানের শুরুতে গুলশান-২ নম্বরে অবস্থিত ইসলাম ফার্মা, বাটা শো-রুম এবং ফ্লোরা লিমিটেডের নামফলক-সাইনবোর্ড ইংরেজিতে লেখা থাকায় সেগুলো অপসারণের পাশাপাশি প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। বুধবার দিনব্যাপী এ অভিযান চলবে।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার জাগো নিউজকে বলেন, গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিষয়টি সম্পর্কে জানানো হয়েছে এরই প্রেক্ষিতে আজ গুলশান-২ নম্বর থেকে এ অভিযান শুরু করেছি, দিনব্যাপী এ অভিযান চলবে।

jagonews24

তবে প্রতিষ্ঠানগুলোর পক্ষে ইসলাম ফার্মার মালিক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, আমাদেরকে কোনো নোটিশ দেয়া হয়নি। হঠাৎ করে এসেই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

একইভাবে ফ্লোরা লিমিটেডের দায়িত্বে থাকা আলাউদ্দিন এবং বাটা-শো রুমের কর্মকর্তা মোহম্মাদ কাউসার অভিযোগ করেন, এ বিষয়ে আমরা কিছুই জানতাম না। তারা বলছে মাইকিং করা হয়েছে, কিন্তু আমরা তা শুনিনি। আজ হঠাৎ করে এসেই আমাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে অভিযানে উপস্থিত থাকা ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুন বলেন, সবাইকে বিষয়টি জানাতে জাতীয় দৈনিকে গণবিজ্ঞপ্তি প্রদান এবং ডিএনসিসির ফেইসবুক পেইজে বিষয়টি দেয়া হয়েছে।

ডিএনসিসির পক্ষ থেকে বলা হয়, হাইকোর্টের নির্দেশ (১৬৯৬/ ২০১৪ নং রিট পিটিশনে প্রদত্ত আদেশ) অনুযায়ী সব প্রতিষ্ঠানের (দূতাবাস, বিদেশি সংস্থা ও তৎসংশ্লিষ্ট ক্ষেত্র ব্যতীত) নামফলক, সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, ব্যানার ইত্যাদি বাংলায় লেখা বাধ্যতামূলক। কিন্তু লক্ষ করা যাচ্ছে যে, কোনো কোনো প্রতিষ্ঠানের নামফলক, সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, ব্যানার ইত্যাদি ইংরেজি ও অন্যান্য বিদেশি ভাষায় লেখা হয়েছে। এমতাবস্থায় ডিএনসিসির এখতিয়ারাধীন এলাকার যাবতীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এএস/এমএমজেড/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :