জঙ্গিবাদ দমনে কার্যকর ভূমিকা রাখছে প্রধানমন্ত্রীর শান্তির দর্শন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০১ পিএম, ০৩ মে ২০১৯

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ এখন আর আঞ্চলিক সমস্যা নয় বরং এটা আন্তর্জাতিক সমস্যা। তাই এটা নিয়ন্ত্রণে বিশ্বব্যাপী কার্যকর উদ্যোগ প্রয়োজন।

বিচার ব্যবস্থাপনা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এ সময় তিনি সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।

শুক্রবার রাজধানী ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন সেমিনার কক্ষে আওয়ামী লীগ তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটি আয়োজিত ‘জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার শান্তির দর্শন’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পৃথিবীর ন্যাক্কারজনক ও বর্বরতম ঘটনা '৭৫সালের ১৫আগস্ট, ২১আগস্ট গ্রেনেড হামলা, সম্প্রতি শ্রীলঙ্কায় সংঘটিত সিরিজ বোমা হামলাসহ সকল সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করেন স্পিকার। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক শেখ হাফিজুর রহমান কার্জন।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশে শান্তির ভিত রচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে প্রধানমন্ত্রী উত্থাপিত ছয় স্তম্ভের শান্তির দর্শন মডেলটি গৃহীত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর শান্তির দর্শন মডেলটি যথাযথ বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব বলে তিনি উল্লেখ করেন। বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শান্তির দর্শন মডেলটি কার্যকর ভূমিকা রাখছে।

তিনি আরও বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে আইনের শাসন সমুন্নত রাখতে হবে। শান্তির স্বার্থে জনগণের ক্ষমতায়ন ও উন্নয়নকে সমন্বয় করতে হবে। সন্ত্রাসীদের দেশ, ধর্ম, বর্ণ নাই উল্লেখ করে তিনি দেশের জনগণকে সচেতনতার সঙ্গে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে সম্পৃক্ত হতে আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সাইদুর রহমান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাড. আফজাল হোসেন।

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ, নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) এ কে মোহাম্মদ আলী শিকদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেন, বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ প্রমুখ।

এইউএ/এমএআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :