সিআইডির এসপি পরিচয়ে প্রতারণা করতেন তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৬ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২০

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পুলিশ সুপার (এসপি) পরিচয়ে বিভিন্ন হাসপাতালের লাইসেন্স নবায়ন করে দেয়ার কথা বলে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. আকমল হোসেন (৪৫) ও জহিরুল ইসলাম ওরফে দীপক (৫৫)। তাদের কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন, ১০টি সিমকার্ড, ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের ভিজিটিং কার্ড ও দুইটি ভুয়া আইডি কার্ড জব্দ করা হয়।

সোমবার (১০ আগস্ট) গাজীপুরের জয়দেবপুর থানা ও ডিএমপির মোহাম্মদপুর থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ।

সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের ওয়েববেজড ক্রাইম টিমের ইনচার্জ এডিসি আশরাফউল্লাহ জানান, গ্রেফতার আকমল হােসেন জিজ্ঞাসাবাদে জানান, তিনি প্রথমে নিজেকে হিউম্যান রাইটস কমিশনের সদস্য পরিচয়ে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে দেশের বিভিন্ন থানার ডিউটি অফিসারের নম্বর সংগ্রহ করেন।

এরপর ডিউটি অফিসারের নম্বরে ফোন দিয়ে নিজেকে সিআইডির এসপি পরিচয় দেন এবং ওই থানার একটি এলাকার নাম উল্লেখ করে জিজ্ঞাসা করেন, তােমাদের ওই এলাকায় কোন পার্টি ডিউটিতে আছে তার অফিসারকে বলো আমার এই নম্বরে ফোন দিতে।

ওই এলাকার অফিসার ফোন দিলে অত্যন্ত সুচতুরতার সাথে নিজেকে সিআইডির এসপি পরিচয় দিয়ে তিনি বলেন, তুমি তােমার ডিউটি এলাকার অমুক হাসপাতালে গিয়ে হাসপাতালের মালিক কিংবা পরিচালককে আমাকে ফোনে ধরিয়ে দাও।

ওই অফিসার তার কথামতাে হাসপাতালের মালিক কিংবা পরিচালককে ফোনে ধরিয়ে দিলে প্রতারক নিজেকে সিআইডির এসপি হিসেবে পরিচয় দিয়ে বলেন, আপনি তাে আপনার হাসপাতালের নবায়নের জন্য আবেদন করেছেন, আপনার ফাইলাট এখন আমার কাছে।

এভাবে ফাইলটি পাস করে দেবেন বলে বিপুল পরিমাণ টাকা বিকাশের মাধ্যমে হাতিয়ে নেন। রাজধানীর রামপুরা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

জেইউ/বিএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]