চীনে উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধের আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪০ পিএম, ০১ অক্টোবর ২০২২

চীনের উইঘুর মুসলিম নির্যাতন বন্ধে বেইজিংকে জোরালো চাপ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ মুসলিম বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশের আলেম-ওলামারা। একই সঙ্গে চীনের পণ্য বয়কটের জন্য দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

শনিবার (১ অক্টোবর) সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর রুনি মিলনায়তনে এক প্রতিবাদ ও আলোচনা সভায় বক্তারা এ আহ্বান জানান।

‘ইসলামিক মুভমেন্ট বাংলাদেশ’ আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় সমমনা ১৩টি ইসলামিক দলের রাজনৈতিক জোট সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের শীর্ষ নেতারা বক্তব্য রাখেন।

সভায় লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, চীনা সরকার মিডিয়ার সব কর্মকাণ্ড স্তব্ধ রেখে বছরের পর বছর ২২ লাখ তুর্কি ও উইঘুর মুসলিমদের বিভিন্ন ডিটেনশন ক্যাম্পে আটকে রেখে নির্যাতন, যৌন নিপীড়ন, হত্যাসহ অপরাধ কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে।

বক্তারা বলেন, চীনা সরকার মানবাধিকারকর্মী, সংবাদকর্মী, জাতিসংঘের কর্মকর্তা এমনকি সংবাদ সংগ্রহে আগ্রহী এমন কাউকে চীনের উইঘুরে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। পুরো পৃথিবীকে অন্ধকারে রেখে তারা এসব অপরাধ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এরপরেও সামান্যতম সংবাদ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। যা দেখে ও শুনে আমরা হতবাক হয়েছি। পুরো বিশ্বের মানুষ এটা মেনে নিতে পারেনি। আমরা চীনা সরকারের এ ধরনের গর্হিত অপরাধ কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তারা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ মিত্ররা চীনের ওপর নামে মাত্র অবরোধ আরোপ করে দায়সারা দায়িত্ব পালন করেছে। কিন্তু চীনের দানব সরকার এ সামান্য অবরোধ ও চাপে ক্ষান্ত হয়নি ও হবেও না। তাকে থামাতে হলে বিশ্বের সব দেশ মিলে জাতিসংঘে প্রস্তাব পাস করিয়ে চীনের ওপর ব্যাপক ভিত্তিক অবরোধ আরোপ করে চাপ তৈরি করতে। অন্যথায় চীনা সরকার কোনোভাবেই গর্হিত কর্মকাণ্ড হতে পিছ পা হবে না।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বক্তারা বলেন, আপনি তো এখন বিশ্ব নেতৃত্বের আসনে সমাসীন। আপনার অদম্য সাহস ও সুদূরপ্রসারী নেতৃত্বে বাংলাদেশ অনেকদূর এগিয়ে গেছে। আপনি সারাবিশ্বের প্রশংসা ও কুড়িয়েছেন। আপনার সাহসিকতা সারাবিশ্বে প্রশংসিত, আপনার সাহসিক নেতৃত্ব মুসলিমদের পক্ষে যাবে সেটাই আমরা আশা করি। আপনি পারেন চীনের মুসলিম নির্যাতনের বিরুদ্ধে কথা বলতে।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবু জাফর কাসেমি, ইসলামী মুভমেন্ট বাংলাদেশের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খায়রুল আহসান, নেজামে ইসলাম বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মাওলানা হারিসুল হক, বাংলাদেশে খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমির মাওলানা আবুল কাশেম কাসেমী, সেক্রেটারি আজম খান, নেজামে ইসলাম বাংলাদেশের সেক্রেটারি মুফতি আহসান উল্লাহ সালামি, বাংলাদেশ ইসলামী মুভমেন্টের যুগ্ম সম্পাদক নুর-ই-হেলাল, মুফতি রফিকুল ইসলামসহ সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় নেতারা।

এমআইএস/আরএডি/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।