কোটাবিরোধী আন্দোলন

শাহবাগে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে চিকিৎসকের বাগবিতণ্ডা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৪৫ পিএম, ১০ জুলাই ২০২৪

সরকারি চাকরিতে কোটা পুনর্বহালের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়েছেন এক নারী চিকিৎসক। এ ধরনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

বুধবার (১০ জুলাই) রাজধানীর শাহবাগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন তিনি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়ানো ডা. জাহানারা আরজু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক।

ভিডিওতে দেখা যায়, ডা. জাহানারা আরজু আন্দোলনরত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ‘জামায়াত-শিবির’ বলে আখ্যায়িত করেন। এসময় শিক্ষার্থীরা তাকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ করতে থাকেন।

বাকবিতণ্ডার ঘটনার ভিডিও ধারণ ও ছবি তুলতে গেলে তিনি গণমাধ্যমকর্মীদেরও হুমকি দেন। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি সাংবাদিকদের তাদের প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল করে দেওয়ারও হুমকি দেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডা. জাহানারা আরজু জাগো নিউজকে বলেন, ‘পথে তারা আমার গাড়ি আটকে দিয়েছিল। আমি আমার পরিচয় দিলেও তারা রাস্তা ছাড়েনি। আমি তাদের বলেছিলাম, এটা আদালত স্টে করেছে, তারপরও কেন তোমরা আন্দোলন করছো। তখন তারা আমাকে প্রশ্ন করে আপনি কোটার পক্ষে নাকি বিপক্ষে? আমি বলি, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানে কোটা রাখা উচিত। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা আমাকে ঘিরে ধরে উগ্রতা প্রদর্শন করে। পরে আমি চলে আসি।’

নতুন ঘোষিত এক দফা কর্মসূচি বাস্তবায়নে এদিন রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে সকাল-সন্ধ্যা সর্বাত্মক ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা। সর্বাত্মক ‘বাংলা ব্লকেড’ অনুযায়ী আজ দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ স্থান অবরোধ করেন কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীরা।

দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানের পাশাপাশি হাইওয়ে এবং রেলপথও অবরোধ করেন তারা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

এএএইচ/ইএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।