কদর বেড়েছে হেফাজত নেতার!


প্রকাশিত: ০১:০৮ পিএম, ১১ জুন ২০১৭

আগামী নির্বাচন এবং দেশের ভবিষ্যৎ ভোটের রাজনীতিতে কি ফ্যাক্টর হবে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ- এমন প্রশ্ন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

রাজনৈতিক ময়দানে কদর বেড়েছে হেফাজতের। সাম্প্রতিক সময়ে তাদের দাবির মুখে সুপ্রিম কোর্টের প্রবেশ পথে স্থাপিত গড অব থেমিসের ভাস্কর্য অপসারণ, কওমি মাদরাসাকে স্বীকৃতি প্রদান, ‘ধর্মকে অস্বীকার করে ধর্মনিরপেক্ষতা নয়’- প্রধানমন্ত্রীর এ ধরনের বক্তব্যে হেফাজতে ইসলামকে নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলো নতুন করে হিসাব-নিকাশ শুরু করেছে। আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কাছে হেফাজতের কদর বেড়েছে।

গত ৬ জুন থেকে রাজধানীর পুরান ঢাকার ধূপখোলার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন হেফাজতের আমির আল্লামা আহমেদ শফী। এক সপ্তাহ আগে তাকে চট্টগ্রাম থেকে হেলিকপ্টারযোগে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকায় আনা হয়। বর্তমানে তিনি আজগর আলী হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ ছোট-বড় রাজনৈতিক দলের অসংখ্য নেতা অসুস্থ হেফাজত নেতাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে আসেন। ৯৩ বছর বয়সী প্রবীণ এই হেফাজত নেতার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে চিকিৎসকদের কাছে জানতে চাওয়া, প্রয়োজনে সব প্রকার সাহায্য ও সহযোগিতার আশ্বাস দেন এসব নেতা।

Hefazat

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় আল্লামা আহমেদ শফীকে দেখতে হাসপাতালে যান। এর আগে ৮ জুন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, ৯ জুন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং ১০ জুন পানি সম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ হাসপাতালে তাকে দেখতে যান।

বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, ভবিষ্যতে দেশে ভোটের রাজনীতিতে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ বড় ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াবে। তাদের মতে, হেফাজতে ইসলামের রাজনৈতিক আদর্শে বিশ্বাসী বিপুলসংখ্যক ভোটার রয়েছেন। তাদের পরিচালিত বিভিন্ন মাদরাসায় রয়েছে কয়েক লাখ শিক্ষার্থী। হেফাজত নেতাকে খুশি রাখতে পারলে সামনের নির্বাচনে হুজুরের ইশারায় ভক্তরা নির্দিষ্ট দলের প্রার্থীদের ভোট দেবেন। এ কারণে সব রাজনৈতিক দলের নেতাই অসুস্থ আল্লামা শফীকে দেখতে যাওয়ার নামে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রাখার প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন।

হেফাজতের সঙ্গে সখ্যতার রাজনীতি মাঠের ভোটার বাড়াবে না কমাবে, তা সময়ই বলে দেবে- এমন মন্তব্য অনেকের।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আল্লামা শফীর শারীরিক অবস্থা ক্রমেই উন্নতি হচ্ছে। মেডিকেল বোর্ড গঠন করে তার বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা চলছে।

এমইউ/এমএআর/পিআর