গুলি করে শ্রমিক হত্যার নিন্দা ফখরুলের

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৫৫ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৯
ফাইল ছবি

রাজধানীর উত্তরা-মিরপুর ও সাভার ন্যূনতম মুজুরি বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন দাবিতে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশের গুলিতে এক শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার দলটির সহ দফতর সম্পাদক মুহাম্মদ মুনির হোসেনের পাঠানো বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সাভারে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে গার্মেন্টস শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি-দাওয়া নিয়ে মিছিলের সময় সুমন নামে একজন শ্রমিক গুলিতে নিহত হওয়ার ঘটনা দেশে বিরাজমান নৈরাজ্যেরই প্রতিচ্ছবি। অধিকার আদায়ের জন্য প্রতিবাদী মানুষের নিরাপত্তা এখন সঙ্কটাপন্ন হয়ে পড়েছে।’

বিবৃতিতে ফখরুল বলেন, ‘মহাভোট জালিয়াতির নির্বাচনের পর সরকার আরও বেশি বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এ আন্দোলনে শ্রমিকের প্রাণ হরণের ঘটনায় মনে হয় এ দেশে প্রতিবাদ-সভা-সমাবেশের মতো গণতান্ত্রিক অধিকারকে আর কোনোভাবেই সহ্য করা হবে না। যে শ্রমিকরা দেশের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি তাদের যৌক্তিক দাবি দাওয়ার প্রতি তাচ্ছিল্য ও অবহেলাই নয় এখন তাদের ন্যায্য দাবিকে দমাতে নিষ্ঠুর দমননীতি অবলম্বন করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘সরকার জনবিচ্ছিন্ন বলেই শ্রমিকের ন্যায্য দাবিকে ভয়ের চোখে দেখছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও দলীয় সন্ত্রাসীদের দিয়ে দেশ শাসন করাটাই এখন লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। সুতরাং দুঃশাসনের প্রকোপ ক্রমশ বিপজ্জনক রূপ ধারণ করছে। সর্বব্যাপী নিপীড়নের যে ছবি আমরা দেখতে পাচ্ছি তাতে জনজীবন নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন থাকাটা আরও কঠিন হয়ে উঠছে। দেশ শোক-সঙ্কটে নিমজ্জিত। এ অরাজক পরিস্থিতির অবসান ঘটাতে হবে।’

ফখরুল আরও বলেন, ‘জনগণের ঐক্যই আমাদের একমাত্র ভরসা। এ ঐক্যের ওপর ভর করেই আমরা গণতন্ত্র, ভোটাধিকার পুনরুদ্ধার করব। আমি গার্মেন্টস শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি মেনে নেয়ার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে সুমনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি জানাচ্ছি গভীর সমবেদনা।’

কেএইচ/এনডিএস/এমএস